সেনানিবাসে এরশাদের প্রথম জানাযা

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এবং সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম নামাজে জানাযা সেনানিবাস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বেলা ১টার কিছু পরই এরশাদের মরদেহ সেনানিবাস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে নেয়া হয়। পরে মসজিদ প্রাঙ্গণে তার জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

এরশাদের উপ-প্রেস সচিব খন্দকার দেলোয়ার জালালী জানিয়েছেন, সোমবার সকাল ১০টায় জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় এরশাদের দ্বিতীয় জানাযা হবে। এরপর বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় পার্টির কাকরাইল অফিসে মরদেহ নেয়া হবে।

সাধারণ জনগণের সুবিধার্থে তৃতীয় জানাযা হবে বাদ আছর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে।

দুই রাত সিএমএইচের হিমঘরে এরশাদের মরদেহ রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে।

১৬ জুলাই সকাল ১০টায় হেলিকপ্টার যোগে মরদেহ রংপুরে নেয়া হবে। রংপুর জেলা স্কুল মাঠে অথবা ঈদগাহ মাঠে বাদ জোহর চতুর্থ জানাযা ওইদিন বিকেলে ঢাকায় বনানী সামরিক কবরস্থানে এরশাদকে দাফন করা হবে।

বুধবার গুলশান আজাদ মসজিদে এরশাদের কুলখানি হবে বলে সাংবাদিকদের জানিযেছেন দলের মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা।

রোববার সকাল পৌনে ৮টার দিকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এরশাদ।

এর আগে শারীরিক অবস্থা খারাপ হয়ে পড়লে গত ২৬ জুন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়েছিল। তিনি ফুসফুসে সংক্রমণসহ বয়সজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।

এইচ এম এরশাদএইচএম এরশাদএরশাদজাতীয় পার্টিহুসেইন মুহম্মদ এরশাদহুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ