শৃঙ্খলা ভেঙে ডিমেরিট পেলেন কোহলি

বিজ্ঞাপন

একে তো সাউথ আফ্রিকার কাছে হেরে সিরিজ ড্র হয়েছে। তার উপর শৃঙ্খলাভঙের জন্য আইসিসির সতর্কবার্তাও পেলেন বিরাট কোহলি। সঙ্গে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট জুটেছে ভারত অধিনায়কের।

বিজ্ঞাপন

কোহলির বিরুদ্ধে অভিযোগ, সাউথ আফ্রিকার পেসার বিউরেন হেনরিক্সের সঙ্গে শারীরিক সংঘর্ষ ঘটিয়েছেন। আইসিসির ২.১২ ধারায় অভিযুক্ত হয়েছেন সেজন্য। ম্যাচের পঞ্চম ওভারে ঘটনাটি ঘটে। এতে ঝুলিতে আরও একটি ডিমেরিট পয়েন্ট যুক্ত হয় বিরাটের। এই নিয়ে তিনবার।

২০১৬’র সেপ্টেম্বরে নিয়ম চালু হওয়ার পর তিনবার ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন কোহলি। গত বছর সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষেই সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিলেন তিনি। আর চলতি বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে পান আরেকটি।

সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে আম্পায়ারের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়েছিলেন কোহলি। সেজন্য ডিমেরিট পয়েন্টের সঙ্গে ম্যাচ ফি’র ২৫% জরিমানাও দিতে হয়েছিল তাকে।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপে আফগানিস্তান ম্যাচেও একই ঘটনা ঘটে। তখন অতিরিক্ত আবেদন এবং আম্পায়ারের দিকে আক্রমণাত্মকভাবে এগিয়ে যাওয়ার জন্য তাকে ম্যাচ ফি’র ২৫% জরিমানা ও একটি ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া হয়।

আইসিসির নিয়মানুযায়ী ২৪ মাসের মধ্যে কোনো খেলোয়াড় চারটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হবেন।

নিজের অপরাধ স্বীকার করে নিয়েছেন কোহলি। ফলে আম্পায়ার রিচি রিচার্ডসন জানিয়েছেন, অপরাধ মেনে নেয়ায় ভারতীয় অধিনায়ককে আনুষ্ঠানিক শুনাতিতে বসতে হবে না।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

কোহলিভারত-সাউথ আফ্রিকা সিরিজলিড স্পোর্টস