রায়ে সন্তোষ প্রকাশ আজমির শরিফ দরগাহর

অযোধ্যায় রাম মন্দির-বাবরি মসজিদের জমির ওপর ভারতীয় সুপ্রিমকোর্ট যে রায় দিয়েছেন তা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড। অন্যদিকে রায় মেনে নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে জনগণকে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছে আজমির শরিফ দরগাহ।

সুন্নি বোর্ডের জন্য কোনো গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ৫ একর জমি প্রদানের আদেশ দিয়ে অযোধ্যার রাম মন্দিরের ২.৭৭ একর জায়গা ট্রাস্টের অধীনে যাবে বলে রায় দিয়েছেন ভারতীয় সুপ্রিমকোর্ট। এই জমির জন্য ৩ মাসের মধ্যে সরকারকে ট্রাস্ট গঠন করারও আদেশ দিয়েছেন আদালত।

শনিবার সকাল ১১টার দিকে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর নেতৃত্বে ৫ সদস্যের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

দ্য হিন্দু জানায়, রায়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় উত্তর প্রদেশ সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের নেতা এবং অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের সদস্য জাফরিয়াব জিলানী অযোধ্যা মামলার রায় নিয়ে অসন্তুষ্ট প্রকাশ করে জানিয়েছেন, এই রায়ের মধ্যে অনেক ‘স্ববিরোধিতা’ ও ‘তথ্যগত ভুল’ আছে বলে মনে করেন তারা। তবে যেহেতু এটি সুপ্রিমকোর্টের রায়। তাই আমরা শ্রদ্ধা করছি। তবে আমরা এখন নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে স্থির করব আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে। সবাই একমত হলে আমরা রিভিউ পিটিশন দাখিল করব।

অন্যদিকে আজমির শরিফ দরগাহ রায় মেনে নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে।

আজমির দরগাহ সুপ্রিমকোর্ট যে রায় দিয়েছেন তাকে স্বাগত জানিয়ে মানুষকে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার আহ্বানও জানিয়েছে।

দরগাহ দিওয়ান জয়নুল আবেদীন আলী খান বলেন, ‘বিচার বিভাগ সর্বোচ্চ এবং প্রত্যেকের এই সিদ্ধান্তকে সম্মান করা উচিত। এখন ঐক্যবদ্ধ থাকার সময় এসেছে। কারণ, সমগ্র বিশ্ব আজ ভারতের দিকে তাকিয়ে আছে।

তিনি বলেন, আমরা রায়কে সম্মান করছি এবং গ্রহণ করছি। আমি দেশের জনগণকে সম্প্রীতি ও শান্তি বজায় রাখার আবেদন করছি।

“আইনের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান করা মূল ইসলামিক শিক্ষা। এখন আমাদের আত্ম ও জাতির উন্নয়নে মনোনিবেশ করা দরকার”।

অযোধ্যা মামলাভারতসুন্নি ওয়াকফ বোর্ড