মেয়র উপ-নির্বাচন: মোটর সাইকেলসহ বিভিন্ন যান চলাচলে বিধিনিষেধ

২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে রাজধানীর উত্তরের নির্বাচনী এলাকায় মোটর সাইকেলসহ বিভিন্ন যান-চলাচলে বিশেষ বিধিনিষেধ আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন। বরগুনা জেলার আমতলী পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন এবং ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচন উপলক্ষেও বিশেষ নির্দেশনা রয়েছে। 

বিজ্ঞাপন

নির্বাচন কমিশনের এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নির্বাচনী এলাকাগুলোতে ২৭ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাত (১২ ঘটিকা) থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত যান চলাচল বন্ধ থাকবে। আর ২৬ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাত ১ মার্চ মধ্যরাত মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত বিভিন্ন সরকারি-আধাসরকারি সংস্থার যানবাহন ও বিশেষ স্টিকারযুক্ত গণমাধ্যমের যানবাহন এ নির্দেশনার বাইরে থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।

তবে ওই সকল নির্বাচনী এলাকা সংলগ্ন মহাসড়ক এবং আন্তঃজেলা সংযোগ সড়কগুলোতে এ আদেশ শিথিল বলে বিবেচিত হবে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে: বিগত সময়ে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন এবং তার আগে ও পরে বিশেষ কয়েকটি যানবাহন যেমন- মোটরসাইকেল ,বেবিট্যাক্সি, মাইক্রোবাস, পিকআপ ইত্যাদি চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। একইভাবে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদ শূন্য পদে উপ-নির্বাচন, বরগুনা জেলার আমতলী পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন এবং ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ-নির্বাচন উপলক্ষে ভোট গ্রহণের জন্য নির্ধারিত দিবস এর পূর্ববর্তী মধ্যরাত অর্থাৎ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২ টা থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত বারোটা পর্যন্ত নিম্নোক্ত যানবাহন চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

বিধিনিষেধে থাকা যানবাহনগুলো হলো: বেবি টেক্সি, অটোরিকশা, ইজিবাইক, ট্যাক্সিক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, কার, বাস, টেম্পু এবং স্থানীয় পর্যায়ে বিভিন্ন যন্ত্র চালিত যানবাহন।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও অন্যান্য কর্তৃপক্ষকে পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে নির্দেশনায়।

নির্বাচন কমিশনযান চলাচাল