ভারতে সব রেকর্ড ভেঙে দৈনিক মৃত্যু চার হাজার ছাড়ালো

শনাক্ত ৪ লাখের ওপরে

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে টানা কয়েক সপ্তাহ ধরে ভারতে দৈনিক মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা ভয়াবহভাবে বেড়েছে। সর্বশেষ পরিসংখ্যানে প্রথমবার দৈনিক মৃত্যুও বেড়ে ৪ হাজার ১৯৪ জন হয়েছে। এটি এখন পর্যন্ত ভারতের সর্বোচ্চ মৃত্যু। 

আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানমূলক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন সর্বোচ্চ ৪ লাখ ১৩ হাজার ২৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে সর্বাধিক ৪ হাজারের ওপরে। যা নিয়ে দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ১৮ লাখ ৮৬ হাজার ৬১১ এবং মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৩৮ হাজার ২৬৫ জনে।

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে ভারতে দৈনিক মৃত্যু তিন হাজারের ওপরেই রয়েছে। তবে সব রেকর্ড ভেঙে দৈনিক মৃত্যু এই প্রথমবার ৪ হাজার ছাড়িয়েছে।

গত মার্চের মাঝামাঝিতেও ভারতে এক দিনে শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল ২০ হাজারের কাছাকাছি। তারপর এপ্রিল মাস থেকে দেশটিতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে সংক্রমণ। বাড়ে মৃত্যুর সংখ্যাও।

বিজ্ঞাপন

গত ৩০ এপ্রিল ৪ লাখের বেশি মানুষের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে ভারতে। তার আগে টানা ৯ দিন ধরে দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা ছিল তিন লাখের বেশি। তারও আগে ১৫ এপ্রিল থেকে দেশটিতে প্রতিদিন দুই লাখের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছিল

এই সময় বাড়ে মৃত্যুর সংখ্যাও। টানা এক সপ্তাহ ধরে দিনে দুই হাজারের বেশি মানুষ করোনায় মারা যাওয়ার পর গত ২৭ এপ্রিল থেকে দৈনিক মৃত্যু তিন হাজারের ওপরে ওঠে। গত কয়েক দিন ধরে দেশটিতে গড়ে সাড়ে তিন হাজারের মতো মানুষ করোনায় মারা যাচ্ছে।

বিশ্বের কোনো দেশে এক দিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্তের রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রের। দেশটিতে গত ৮ জানুয়ারি বিশ্বের সবোর্চ্চ আক্রান্ত শনাক্ত হয় ৩ লাখ ৩ হাজার ৯২৪ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটার্স শুরু থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হালনাগাদ তথ্য দিয়ে আসছে। তাদের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ কোটি ৭৫ লাখ ৩০ হাজার ৭২৯। মোট মৃত্যু ৩২ লাখ ৮৩ হাজার ৭২৭ জন।

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাসদৈনিক মৃত্যু ৪ হাজারবিশ্বব্যাপীভারত