প্রধানমন্ত্রী আবারও বাকশাল নিয়ে আসার কথা ভাবছেন: মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে দেশে আবারও একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বাকশাল নিয়ে আসার কথা ভাবছেন। যা জনগণ মেনে নেবে না।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বৃহস্পতিবার মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। সভার আয়োজন করে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন: আমাদের রাষ্ট্র ক্ষমতা যিনি (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) দখল করে বসে আছেন জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে, এটা খুব ভালোভাবে উপলব্ধি করতে পেরেছেন যে তিনি আর কোনোদিন কোনো নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারবেন না। সেজন্য আবার ওই একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বাকশাল নিয়ে আসার কথা ভাবছেন। এটা নিঃসন্দেহ এ দেশের জনগণের জন্য একটা আতংকের সংবাদ। এদেশের মানুষ কখনো একদলীয় শাসন মেনে নেবে না। এদেশের মানুষ কখনই এক ব্যক্তির শাসন মেনে নেবে না। দেশের মানুষ সব সময় প্রতিবাদ করেছেন, বিজয় ছিনিয়ে এনেছে।

তিনি আরও বলেন: আমাদের দুর্ভাগা যে খালেদা জিয়া সবচেয়ে বেশি গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন তিনি আজ কারাগারে। শুধু তাই নয় তিনি অসুস্থ। তার চিকিৎসার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে না।

খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের প্রতীক জানিয়ে বিএনপির সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন: আসুন আমরা সবার আগে খালেদা জিয়ার মুক্তিকে ত্বরান্বিত করি, তিনি গণতন্ত্রের প্রতীক। তিনি গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন, লড়াই করেছেন। এখনও তিনি যে কারাভোগ করছেন সেটাও তার গণতান্ত্রিক সংগ্রাম। আসুন আজকের এই দিনে আমরা ঐক্যবদ্ধ হই, ঐক্যকে প্রসারিত করি। জনগণের বিজয় ছিনিয়ে নিয়ে আসি।

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, গণফোরামের সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন, জে এস ডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসিন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাবিএনপি মহাসচিবমির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর