নেত্রকোনার বালিশ মিষ্টির ইতিহাস

জাম গোল্লা পেয়ে শশুড় চটে করলো নালিশ, ইচ্ছে ছিলো আনবে জামাই গয়ানাথের বালিশ। কবিতার পঙক্তি শুনেই বুঝতে পারছেন কথা বলছি নেত্রকোনার বিখ্যাত বালিশ মিষ্টি নিয়ে। যে পঙক্তি আজো নেত্রকোনার মানুষের মুখে মুখে ঘুরে বেড়াচ্ছে। যদিও আমরা জানি বালিশের খ্যাতি ঘুমের আরামের জন্য কিন্তু এ বালিশ সে বালিশ নয় যার কথা হচ্ছে। বালিশ মিষ্টির স্বাদ যে একবার পেয়েছে সে জানে এই মিষ্টি যেন তুলা দিয়ে তৈরি, মানে বেশ তুলতুলে! খেয়েই আরামে চোখ বন্ধ হয়ে আসতে পারে। শত বছর আগে একরকম শখ থেকেই এ মিষ্টি তৈরি করেছিলেন নেত্রকোনার সর্বজনপরিচিত মিষ্টি ব্যাবসায়ী গয়ানাথ ঘোষ। জেলা শহরের অজহর রোডে গয়ানাথ ঘোষের ছোট্ট মিষ্টির দোকানে প্রচলিত প্রায় সব ধরনের মিষ্টির পাশাপাশি ব্যতিক্রমী বালিশ মিষ্টি পেয়ে যায় বিশেষ খ্যাতি। বালিশের আকৃতি হওয়ায় গয়ানাথ আদর করে এই মিষ্টির নাম দেন বালিশ। বালিশ মিষ্টির ওপর আরো বিস্তারিত জানতে চলুন দেখে নিই ভিডিওটি।

ভিডিও ও সম্পাদনা: জিয়াউল হক খোকন

ইতিহাসনেত্রকোনা