নিখোঁজের ৩৫ ঘন্টা পর ভেসে উঠলো শিশু রাবেয়ার মরদেহ

ছবি তুলতে গিয়ে যমুনা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার ৩৫ ঘন্টা পর ৫ বছরের শিশু রাবেয়ার মরদেহ পেয়েছে পরিবার। শুক্রবার সকাল ৯ টার দিকে নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার বিকালে নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই লাশের অপেক্ষায় দিনরাত নদীর পাড়েই পড়ে থাকতো পরিবারের সদস্যরা। আজ সকালে ৯ টার দিকে বালুবাহী সেই ভলগেটের পাশে হঠাৎ করেই রাবেয়ার মরদেহ ভেসে উঠে। পরে মরদেহটি উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়নের সিরাজকান্দি গ্রামের এরশাদ আলী ঈদ উপলক্ষে বুধবার বিকালে পরিবারের সবাইকে নিয়ে ল্যাংড়া বাজার এলাকার যমুনা নদীর পাড়ে ঘুরতে যায়। এসময় রাবেয়াকে বালুবাহী ভলগেটের উপর দাঁড় করিয়ে ছবি তুলতে গেলে সে নদীতে পড়ে যায়। স্রোত বেশি থাকায় পরিবারের সদস্যরা চেষ্টা করেও তার কোন খোঁজ পায়নি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় টাঙ্গাইল ও ভূঞাপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তারা উদ্ধারের চেষ্টা চালালেও অতিরিক্ত বালুবাহী ভলগেট থাকায় রাত ৯ টার দিকে প্রথম দফা উদ্ধার কাজ চালিয়ে ফিরে যায়। বৃহস্পতিবার পুনরায় দ্বিতীয় দিনের মতো তারা উদ্ধার কাজ চালিয়েও ব্যর্থ হয়।

তাদের অ‌ভি‌যোগ, বালু উ‌ত্তোলনকারী ভল‌গেট স‌রি‌য়ে না নেয়ায় গত বুধবার ফায়ার সা‌র্ভি‌সের ডুবুরি দল রা‌বেয়াকে উদ্ধার করতে পারেনি। দুই‌দিন পর শুক্রবার সকা‌লে তার লাশ যমুনা নদী‌তে ভে‌সে উ‌ঠে।

মরদেহ উদ্ধার