জিদানের ইঙ্গিত, বেল থাকছেন

জয় দিয়েই নতুন মৌসুম শুরু অ্যাটলেটিকোর

এক ক্লাবে বিতর্কের অবসান করলেন অন্য কোচ। অন্য ক্লাবে মিডিয়ার সৌজন্যে জেগে উঠল অন্য বিতর্ক। লা লিগার প্রথম ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে গোল না করলেও একটি গোলের পাস ছিল গ্যারেথ বেলের। কোচ জিনেদিন জিদানের স্ট্র্যাটেজিতে ভালোভাবেই ছিলেন বেল। ফলে বেলকে রিয়ালে রাখা নিয়ে আর সংশয় থাকছে না।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে, বার্সেলোনা যে নেইমারকে পেতে বারবার পিএসজির দোরগোড়ায় হাজির হচ্ছে নিত্যনতুন প্রস্তাব নিয়ে, ফরাসি দৈনিক লা প্যারিসিয়ানের দাবি, তা নাকি আসলে লিও মেসিকে খুশি করার জন্য। আসলে বার্সেলোনা কর্মকর্তারা খুব জোর দিয়ে নেইমারকে নিতে চাইছেন না। শুধু মেসিকে খুশি রাখতেই ‘নাটক’ করছেন প্যারিসে গিয়ে।

শনিবার রাতে সেলটা ভিগোকে ৩-১ হারায় রিয়াল। ম্যাচের পর জিদান উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন বেলের। সরাসরি বলেন, ‘বেল রিয়ালে থেকে যাচ্ছে। আমাদের দলে যারা আছে তারা সবাই মিলে ইতিবাচক ভাবতে সাহায্য করছে। আমাদের এই মৌসুমে ফোকাস করতে হবে। তার বেশি কিছু নয়।’

লা লিগার প্রথম ম্যাচে চোটের জন্য ইডেন হ্যাজার্ডকে পায়নি রিয়াল। জিদানের মন্তব্য, ‘হ্যাজার্ডের চোট আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যের। তাতে আমি যে বেলকে দিয়ে ম্যাচ শুরু করব ভেবেছিলাম, তাতে কোনো বদল হয়নি। ম্যাচে গ্যারেথ, ভিনিসিয়াস রক্ষণেও দারুণ সাহায্য করেছে।’

শুধু বেল নয়, লোনে বায়ার্ন মিউনিখে কাটিয়ে আসা হামেস রদ্রিগেজকেও রিয়াল রেখে দিচ্ছে। জিদানের কথায়, ‘গ্যারেথ, হামেস-সবাই আমাদের দলের জার্সির জন্য লড়াই করবে।’

বার্সেলোনায় থাকাকালীন মেসির সঙ্গে দারুণ বন্ধুত্ব হয়েছিল ব্রাজিলিয়ান নেইমারের। লা প্যারিসিয়ানের দাবি, বার্সেলোনা যে পিএসজির সঙ্গে বারবার কথা বলছে এটা মেসিকে খুশি রাখার জন্যই। মেসিকে দেখানো যে, তারা নেইমারের জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছে। শেষ পর্যন্ত নেইমার না এলেও পরে বার্সেলোনা বোঝাতে পারবে, পিএসজি রাজি হয়নি বলেই ট্রান্সফার সম্ভব হয়নি। আসলে নাকি বার্সেলোনা সেভাবে জোর দিচ্ছে না পিএসজি কর্মকর্তাদের কাছে। যা ছড়াচ্ছে তা মিডিয়াতেই। এই দাবিতে স্বাভাবিকভাবেই বিতর্ক ছড়িয়েছে বার্সেলোনায়।

রিয়াল-বার্সার এসব খবরের ফাঁকে রোববার রাতে জয় তুলে নিয়েছে লা লিগার আরেক শিরোপা দাবিদার অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের মতো জয় দিয়েই নতুন মৌসুম শুরু করল অ্যাটলেটিকো। তবে গেটাফকে ১-০ গোলে হারিয়েছে ডিয়েগো সিমিওনের দল।

অ্যাটলেটিকোর কষ্টার্জিত জয়ের ম্যাচে নায়ক আলভারো মোরাতা। ম্যাচের ২৩ মিনিটে করা তার গোলই শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ভাগ্য লিখে দেয়।

তবে রিয়াল-অ্যাটলেটিকো নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিতলেও অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের কাছে ১-০ গোলের হার দিয়ে মৌসুম শুরু করেছে বার্সেলোনা।

অ্যাটলেটিকোজিদানবেলরিয়াললা লিগালিড স্পোর্টস