জামিনে মুক্ত মির্জা ফখরুল

জামিনে মুক্তি পেয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এর আগে বিকেলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে আপীল বিভাগের দেয়া জামিনের আদেশের কপি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছায়।

সোমবার সকালে স্বাস্থ্যগত কারণে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবকে শর্তসাপেক্ষে ছয় সপ্তাহের জামিন বহাল রাখেন আপিল বিভাগ।

এই সময়ের মধ্যে মির্জা ফখরুল চাইলে চিকিৎসার জন্য বিদেশেও যেতে পারবেন। কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে মির্জা ফকরুল সাংবাদিকদের বলেন, আমি এখন প্রচন্ড অসুস্থ। ভালো চিকিৎসার প্রয়োজন। আমার স্ত্রী ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও সিঙ্গাপুরে যোগাযোগ করেছে। যেখানে সুবিধা হয় সেখানে চিকিৎসার জন্য যাবো।

অসুস্থ মাকে দেখতে হয়ে হাসপাতালে যাচ্ছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখান থেকে সরাসরি ইউনাইটেড হাসপাতালে তাকে দেখতে যাবো। সেখানে আমার ব্যক্তিগত চিকিৎসকের সাথে দেখা করার কথা রয়েছে। প্রয়োজনে সেখানে একরাত থাকতেও পারি।

জামিনের মেয়াদ শেষে ফখরুলকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পন করতে হবে।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের অবকাশকালীন বেঞ্চ ফখরুলের চিকিৎসা প্রতিবেদন দেখে এ আদেশ দেন।

চলতি বছরের ৫ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বর্ষপূর্তি ঘিরে ২০-দলীয় জোটের কর্মসূচির সময়ে বিভিন্ন এলাকায় নাশকতার অভিযোগে ৬ জানুয়ারি মির্জা ফখরুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে পল্টন ও মতিঝিল থানার ৩ মামলায় হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রাখেন আপিল বিভাগ।

আপিল বিভাগজামিনবিএনপিমির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর