ঘূর্ণিঝড় বুলবুল: ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত

সেন্টমার্টিনে আটকে পড়েছে অন্তত ১২০০ পর্যটক

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর কারণে সাগর উত্তাল হয়ে উঠেছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরগুলোকে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর উত্তাল থাকায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে সেন্টমার্টিনে অন্তত ১২০০ পর্যটক আটকা পড়েছে। সাগরে মাছ ধরারত ফিশিং ট্রলারগুলো উপকূলে ফিরে আসতে শুরু করেছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে গুমোট আবহাওয়া বিরাজ করছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপকূলবর্তী জেলা সমূহের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে এবং কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

ঘুর্ণিঝড় মোকাবেলায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসন নানা প্রস্তুতি নিচ্ছে। ভারী বৃষ্টি, বাতাসের তীব্রতা এবং সমুদ্রে প্রবল জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কায় বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নৌযানগুলোকে উপকূলের কাছাকাছি থাকতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর প্রভাবে সাগর উত্তাল হওয়ায় আজ থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে সেন্টমার্টিনে অবস্থান করা পর্যটকদের নিরাপদে ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাদের সার্বিক খবরা খবর নেয়া হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নানা প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

কক্সবাজার আবহাওয়া অফিস জানায়, সাগর উত্তাল থাকায় সকল মাছ ধরার ও অন্যান্য নৌযানকে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে আসার জন্য বলা হয়েছে।

পাকা ধান ও রবি শষ্য ক্ষেতে নষ্ট হওয়ার আশংকায় ক্ষেত থেকে পাকা ও প্রায় পাকা ধান ও অন্যান্য শষ্য শনিবারের মধ্যে কেটে নিরাপদে নিয়ে আসার জন্য কক্সবাজার জেলা আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তারা কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।

আবহাওয়াকক্সবাজারঘুর্ণিঝড়বুলবুলসমুদ্র বন্দর