গণরুম সমস্যা সমাধান না হলে ভিসি’র বাসভবনে উঠবেন শিক্ষার্থীরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণরুম সমস্যা সমাধানে কোন দৃশ্যমান পদক্ষেপ পরিলক্ষিত না হলে গণরুমের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আগামী মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) থেকে উপাচার্যের বাসভবনে উঠে পড়বেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ডাকসু সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতিতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

এর আগে ১ অক্টোবর সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যে গণরুমবাসী শিক্ষার্থীদের নিয়ে এক ছাত্র সমাবেশে গণরুম সমস্যা সমাধানে ১৫ কার্যদিবসের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের গণরুম সমস্যা চলমান এক বিভীষিকার নাম আখ্যা দিয়ে ডাকসুর এই সদস্য বলেন,’বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে বহুদিন ধরেই শিক্ষার্থীদের তুলনায় আসন সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে অপ্রতুল। এমতাবস্থায় ‘গণরুম’ একটি দায়সারা প্রক্রিয়া, যেখানে কোনোরকম গাদাগাদির মাধ্যমে ছাত্রদের স্থানসঙ্কুলান হলেও সেখানে বসবাসকারী শিক্ষার্থীদের জীবনমান মানবেতর পর্যায়ে অবনমিত হয়েছে। এটি একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশের সাথে কোনোভাবেই সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, অপ্রতুল আবাসন একজন শিক্ষার্থীর শারীরিক ও মানসিক জীবনযাত্রার উপর অত্যন্ত বিরূপ প্রভাব ফেলছে। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে এই প্রতিকূলতাকেই মেনে নেয় প্রান্তিক পর্যায় থেকে আসা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজারো শিক্ষার্থী।’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আবাসনের জন্য প্রতিশ্রুতবদ্ধ হলেও এখানে নীরব ভূমিকা পালন করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আবাসন সঙ্কটের প্রেক্ষিতে সৃষ্ট গণরুম নামক অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে লড়াই হিসেবে গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে আমি আমার বৈধ সিট ছেড়ে গণরুমে অবস্থান করছি। আমার সিটে গণরুমের শিক্ষার্থীরা পালাক্রমে থাকেন। পরবর্তীতে ৩ সেপ্টেম্বর গণরুম সমস্যা সমাধানকল্পে উপাচার্য বরাবর দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বানের পাশাপাশি সাময়িক সমাধানের কয়েকটি প্রস্তাবনা সম্বলিত স্মারকলিপি প্রদান করেছি। পাশাপাশি প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন), প্রক্টর, সকল হলের প্রাধ্যক্ষ, শিক্ষক সমিতির সভাপতি এবং ডাকসুর সকল নির্বাচিত প্রতিনিধি বরাবর অনুলিপি প্রদান করেছি।

সৈকত বলেন, দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ কিংবা সদিচ্ছার কোনোরুপ প্রতিফলন না দেখতে পাওয়ার প্রেক্ষিতে গত ১ অক্টোবর সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যে গণরুমবাসী শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে ছাত্র সমাবেশ থেকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে গণরুম সমস্যা সমাধানে দৃশ্যমান পদক্ষেপ পরিলক্ষিত না হলে শিক্ষার্থীদের নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনে উঠার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। পরিপ্রেক্ষিতে প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির বৈঠকে আশাব্যঞ্জক কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এজন্য প্রশাসনকে সাধুবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। কিন্তু দু;খজনক হলেও সত্য সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নে কোনো পদক্ষেপ পরিলক্ষিত হচ্ছে না।

এরই প্রেক্ষিতে আগামী মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সকালে গণরুমের শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে উপাচার্য মহোদয়ের বাসভবনে থাকতে শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান ডাকসুর এই সদস্য।

গণরুম সমস্যাডাকসু সদস্যঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়তানভীর হাসান সৈকত