গণভবনে খালেদা জিয়ার মেডিক্যাল রিপোর্ট তৈরি হচ্ছে: ছাত্রদল সম্পাদক

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেছেন; গণভবনে বেগম খালেদা জিয়ার মেডিক্যাল রিপোর্ট তৈরি হচ্ছে। জামিন না দিয়ে তাকে অন্যায়ভাবে কারাগারে দীর্ঘ সময় আটকে রাখার ষড়যন্ত্র হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে টিএসসিতে সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে টালবাহানা এবং মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

এর আগে একই দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে ছাত্রদল।

সমাবেশে ছাত্রদল সম্পাদক আরও বলেন: “আমরা এই বাকশালি সরকারের সময়ে দেখেছি প্রধান বিচারপতিকে বিচারের অধিকার কেড়ে নিয়ে ষড়যন্ত্র করে বিদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমরা মনে করছি গণভবন থেকে বিচার বিভাগকে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।”

সেসময় বেগম জিয়ার জামিন নিয়ে আর কোনো টালবাহানা ছাত্রদল মেনে নিবে না বলেও মন্তব্য করেন শ্যামল।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ টাকা লেনদেনের অভিযোগে বেগম খালেদা জিয়াসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন।

এ মামলার অন্য আসামিদের মধ্যে ছিলেন, বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর সাবেক এপিএস জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার এপিএস মনিরুল ইসলাম।

এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজার রায় ঘোষণার পর বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়া হয়। বর্তমানে তিনি চিকিৎসার জন্য বিএসএমএমইউ হাসপাতালে রয়েছেন।

শেয়ার করুন:
খালেদা জিয়াগণভবনছাত্রদল সম্পাদকমেডিক্যাল রিপোর্ট