উপজেলা নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে ১১৬ উপজেলায় চলছে ভোটগ্রহণ

দ্বিতীয় ধাপে দেশের ১৬ জেলার ১১৬ উপজেলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। এসব উপজেলায় সোমবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোট কোনো ধরনের বিরতি ছাড়াই বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে।

বিজ্ঞাপন

রোববার রাত ১০টার আগেই নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সব প্রস্তুতি শেষ করেছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচন উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট উপজেলায় সাধারণ ছুটি চলছে।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে সব ধরনের নির্দেশনা দেয়া আছে। এই নির্বাচনে কোনো রকম অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

উপজেলাগুলোতে শনিবার মধ্যরাত থেকে সকল ধরনের নির্বাচনী প্রচারণা শেষ হয়। এবারের উপজেলা নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হচ্ছে।

নির্বাচনী এলাকায় যানবাহন চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে নির্বাচনের দু’দিন আগে, নির্বাচনের দিন এবং নির্বাচনের পরের দিন মোট ৫দিন অতিরিক্ত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

ইসি জানিয়েছে, সোমবার সারাদিন প্রতিটি সাধারণ ভোট কেন্দ্রে ১৪ জন এবং ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৬ জন করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকছে।

গত ১০ মার্চ প্রথম ধাপে ৭৮ উপজেলায় ভোট হয়, ভোট পড়ে ৪৩ শতাংশ। প্রথম ধাপে ৮৭ উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা থাকলেও নানা কারণে ভোট হয় ৭৮ উপজেলায়। এর আগে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান হন ২৮ জন।

দ্বিতীয় ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ৪৮ জন নির্বাচিত হয়েছেন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি ১৮ মার্চ ভোটের দিন রেখে ১২৯ উপজেলার তফসিল ঘোষণা করে ইসি। একক প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় ৬ উপজেলায় ভোটের দরকার পড়ছে না। আরও ৬ উপজেলার ভোট পিছিয়েছে ইসি। আদালতের নির্দেশে গোবিন্দগঞ্জের নির্বাচন স্থগিত রয়েছে। এজন্য সোমবার ১১৬ উপজেলায় ভোট হচ্ছে।

ইসির তথ্য অনুযায়ী, দ্বিতীয় ধাপে লড়ছেন ১ হাজার ৩১০ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন ৩৭৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫৩৯ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৯৪ জন। এসব উপজেলায় মোট ভোটকেন্দ্র ৭০৩৯টি, ভোটার ১ কোটি ৭৯ লাখ ৯ হাজার ৬ জন।

আগামী ২৪ মার্চ তৃতীয় ধাপের, ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপের ভোট হবে এবং পঞ্চম ও শেষ ধাপের ভোট হবে ১৮ জুন।

উপজেলা নির্বাচনউপজেলা পরিষদউপজেলা পরিষদ নির্বাচননির্বাচন কমিশন