চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘৭ আগস্ট থেকে এনআইডি কার্ড দেখিয়ে করোনা টিকা নেয়া যাবে’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে এনআইডি কার্ড নিয়ে টিকাকেন্দ্রে গেলেই করোনা টিকা নেয়া যাবে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও লকডাউন নিয়ে সচিবালয়ে সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে গেলে টিকা দেওয়া যাবে। সরকার টিকা কার্যক্রমকে আরও জোরদার করবে।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে ইউনিয়ন পরিষদে টিকা কেন্দ্র স্থাপন করছে। যেখান থেকে ইউনিয়নের সমস্ত লোকজন আপামর জনসাধারণ যারা টিকা নিতে চায় তারা ওখানে এসে টিকা নিতে পারবে। এই সুবিধাটুকু আমরা এখন করে দিচ্ছি। তারা এনআইডি কার্ড নিয়ে আসলেই টিকা নিতে পারবে। আমরা চাচ্ছি যারা পঞ্চাশোর্ধ আছে, যারা বেশি সংক্রামিত হচ্ছে। তাদের অগ্রাধিকার দিতে।

এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ঢাকা শহরের হাসপাতালগুলোতে ৭৫ শতাংশ রোগী আছে গ্রাম থেকে আসছে। যাদের ৯০ শতাংশই টিকা নেয়নি। তাদের মধ্যে মৃত্যুর হারও বেশি। সে কারণে আমরা ওদিকে একটু জোর দিচ্ছি বেশি। যারা পঞ্চাশোর্ধ তারা যেন তাড়াতাড়ি ইউনিয়ন পরিষদে এসে টিকা নিতে পারে। টিকা আরও বেশি হাতে যখন আসবে তখন আমরা আরও নিচে যেতে পারবো অর্থাৎ ওয়ার্ড পর্যায়ের চিন্তাও আমরা রেখেছি।

ইউনিয়ন পর্যায়ে কবে থেকে শুরু হচ্ছে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা আগামী ৭ আগস্ট থেকে শুরু করছি।

যাদের এনআইডি নেই তারা কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করবে এর জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, যাদের আইডি কার্ড বা জন্ম সনদ নাই, তাদের একটা বিশেষ ব্যবস্থায় রেজিস্ট্রেশন করে স্পটে টিকা দিয়ে দেওয়া হবে।

এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, চলমান লকডাউন ৫ আগস্ট পর্যন্ত চলবে।