চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৫ বছর পর আবাহনীকে হারালো মোহামেডান

আবাহনীকে ৩১ রানে হারিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টুয়েন্টিতে জয়ের ধারায় ফিরেছে মোহামেডান। টানা তিন হারের পর জয় পেল সাকিব আল হাসানের দল। ৫ বছর পর আকাশী-নীলদের হারালো সাদা-কালোরা।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর বিপক্ষে মোহামেডান শেষ জিতেছিল ২০১৬ সালে। শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ৫০ ওভারের ম্যাচে আবাহনীর বিপক্ষে ৮ উইকেটে জিতেছিল মোহামেডান।

দীর্ঘ বিরতির পর পাওয়া জয়ে বৃষ্টি আশীর্বাদ হয়েছে মোহামেডানের জন্য। মিরপুরে বৃষ্টি থামার পর আবাহনীর প্রয়োজন পড়ে ১৯ বলে ৪৫ রানের। মুশফিক-মোসাদ্দেকরা নতুন লক্ষ্যে লড়াই করতে পারেননি। নিতে পারে মাত্র ১৩ রান।

শেষ তিন ওভারের দুটিই করেন তাসকিন আহমেদ। দেন মাত্র ৫ রান। তুলে নেন দুটি উইকেট। তাতেই জয় নিশ্চিত হয়ে যায় মোহামেডানের।

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান তোলে মোহামেডান। জবাব দিতে নেমে প্রথম ওভারেই ২ উইকেট হারায় আবাহনী।

বিজ্ঞাপন

৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়া আবাহনীকে উদ্ধারের চেষ্টা চালান মুশফিকুর রহিম। ইনিংসের পঞ্চম ও সাকিবের প্রথম ওভারে মুশফিক পরপর দুটি বাউন্ডারি মারেন। প্রথমটি ছয়, পরেরটি চার।

শেষ বলে এলবিডব্লিউর আবেদনে আম্পায়ার ইমরান পারভেজ সাড়া না দেয়ায় খেপে যান সাকিব। লাথি মেরে ভাঙেন স্টাম্প। পরের ওভারে ৫টি বল হওয়ার পর বৃষ্টি শুরু হলে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

বৃষ্টির আগে আবাহনী ৫.৫ ওভারে ৩ উইকেট খরচায় তোলে ৩১ রান। ৯ ওভারের নতুন লক্ষ্যে ৬ উইকেট হারিয়ে আকাশী-নীলরা তোলে মাত্র ৪৪ । শুভাগত হোম তুলে নেন প্রথম তিনটি উইকেট।

মোহামেডান ইনিংসের সর্বোচ্চ রান আসে সাকিবের ব্যাট থেকে। এ বাঁহাতি ২৭ বলে করেন ৩৭ রান। ২২ বলে ৩০ রান করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদুল হাসান।

স্বাধীন তিনটি ও তানজিম হাসান সাকিব নেন দুটি উইকেট। একটি উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

বিজ্ঞাপন