চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৪৩ বছরের রেকর্ড ভেঙে ইউরোপের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ইতালিতে

ইউরোপের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রার রেকর্ড হয়েছে ইতালির দ্বীপ সিসিলিতে। সেখানে ৪৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা ১১৯.৮ ফারেনহাইট তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ তাপমাত্রার এ তথ্য জানালেও তা বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা নিশ্চিত করবে।

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার মতে, বর্তমানে ইউরোপের সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রার রেকর্ড ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ১৯৭৭ সালে গ্রিসের এথেন্সে তা রেকর্ড করা হয়।

বর্তমানে ইতালিতে আফ্রিকা থেকে আসা অ্যান্টিসাইক্লোন লুসিফারের কারণে হিটওয়েভ চলছে। অ্যান্টিসাইক্লোন হলো উচ্চ বায়ুমণ্ডলীয় চাপের জায়গা যেখানে বাতাস ডুবে যায়।

আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, লুসিফার ইতালির মূল ভূখণ্ড হয়ে উত্তরে যাবে। সেই পথে সেটা রাজধানী রোমসহ অন্যান্য শহরে তাপমাত্রা আরও বাড়িয়ে দেবে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বেশ কিছু অঞ্চলে চরম তাপমাত্রার জন্য রেড অ্যালার্ট জারি করেছে এবং শুক্রবারের মধ্যে সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য ঝুঁকির মুখোমুখি হওয়া শহরগুলির সংখ্যা ৮ থেকে ১৫ পর্যন্ত বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কয়েক দশকে ভূমধ্যসাগরীয় তাপপ্রবাহের কারণে বেশ কিছু দেশ তাদের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে। এর ফলে দক্ষিণ ইতালিতে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে সিসিলি, ক্যালাব্রিয়া এবং পুগলিয়া সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ইতালির অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা বলেছেন, ভূমিতে আগুন ছড়িয়ে পড়া রুখতে সিসিলি ও ক্যালাব্রিয়ায় তারা গত ১২ ঘণ্টায় আরও ৩০০টি অপারেশন পরিচালনা করছেন। বিদেশি বেশ কিছু দলও সেখানে সাহায্য করছে।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী কারিয়াকোস মিটসোটাকিস এটাকে ‘দু:স্বপ্ন’ বলে উল্লেখ করেছেন।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে গরম ও শুষ্ক আবহাওয়ার ঝুঁকি বেড়েছে, তাতে আরো বেড়েছে দাবানল। শিল্প যুগ শুরু হওয়ার পর থেকে বিশ্ব ১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস উষ্ণ হয়েছে এবং যদি বিশ্বজুড়ে সব সরকার নির্গমনের তীব্রতা হ্রাস না করে তাহলে তাপমাত্রা আরও বাড়তে থাকবে।

বিজ্ঞাপন