চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘২ মাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে নেওয়া হবে’

আগামী ২ মাসের মধ্যে এক লাখ রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর ভাসানচরে সরিয়ে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সচিব এস এম শাহ কামাল।

শনিবার উখিয়ার বালুখালী ২/২ রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় সেনা বাহিনীর তত্ত্বাবধানে আয়োজিত দূর্যোগ মোকাবিলার প্রস্তুতি মহড়ার উদ্বোধনকালে ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা সচিব এস এম শাহ কামাল এ কথা বলেন।

সচিব বলেন, কক্সবাজারের বিভিন্ন ক্যাম্পে ১ লাখ ৩৩ হাজার রোহিঙ্গা পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ হাজার পরিবার প্রাকৃতিক দূর্যোগের ঝুঁকিতে রয়েছে। এদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়ার কাজ চলছে। ইতিমধ্যে ৫ হাজার পরিবারকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, আসন্ন বর্ষা মৌসুমে বন্যা, ঘূর্ণিঝড়, পাহাড় ধ্বস ও পাহাড়ী ঢলের আশংকায় ঝূঁকি মোকাবেলায় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে স্থানীয় রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠিসহ সশস্ত্র ও সরকারি বিভিন্ন বাহিনী এবং বিভিন্ন সংস্থা কাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, বিশাল পাহাড়ী এলাকায় রোহিঙ্গারা আশ্রয় নেয়ায় বন ও পরিবেশের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সরকার সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে নানা চিন্তাভাবনা করছে। রোহিঙ্গাদের নোয়াখালীর ভাসানচরে স্থানান্তরের পর খালি জায়গায় নতুন করে বনায়ন করে আগের প্রাকৃতিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনা হবে।

বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাব, আনসার, ফায়ার সার্ভিস, রেড ক্রিসেন্ট, বিএসসিসি, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা, বিভিন্ন সংস্থার স্বেচ্ছাসেবক ও স্থানীয় রোহিঙ্গারা মহড়ায় অংশগ্রহণ করেন।

বিজ্ঞাপন