চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

২২ এপ্রিল থেকে আবারও দোকানপাট খু্লতে ব্যবসায়ীদের দাবি

আগামী ২২ এপ্রিল থেকে সারাদেশের মার্কেট, দোকানপাট ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খু্লে দেয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি।

রোববার নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানানো হয়।

এ সময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন।

এর আগে গত ১৩ এপ্রিল সংবাদ সম্মেলন করে ব্যবসায়ীরা বলেছিলেন ২১ এপ্রিল থেকেই দোকান খুলতে চান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ীরা বলেন, ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ঈদের আগে ঋণ প্রণোদনা হিসাবে সরকারের কাছে ৪৮ হাজার ৩৫৪ কোটি টাকা দাবি করছি আমরা।

বিজ্ঞাপন

করোনারর দ্বিতীয় ঢেউয়ে মোকাবিলায় গত ৪ এপ্রিল সারা দেশে এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ জারি করেছিল সরকার। পরদিন থেকেই দোকানপাট খুলে দেয়ার দাবিতে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে বিক্ষোভ করেন ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ী নেতা হেলাল উদ্দিন বলেন, গত একবছর মহামারি করোনার কারণে ব্যবসায়ীরা অর্থনৈতিকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ২০২০ সালের ১৮ মার্চ যখন বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে, তখন আমরা দোকান মালিকরা স্বেচ্ছায় ২৫ মার্চ থেকে সবকিছু বন্ধ করে দেই। সরকার পরদিন ২৬ মার্চ থেকে সবকিছু বন্ধ ঘোষণা করে। তখন থেকে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরাদের চরম ব্যবসায়িক মন্দা ও আর্থিক অনিশ্চয়তা নেমে আসে।

ব্যবসায়ীদের আন্দোলনের মুখে ৯ এপ্রিল থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে শপিংমল ও দোকানপাট খোলার অনুমতি দেয় সরকার। এরপর১৪ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী আবারো এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করা হয়। দ্বিতীয় দফার লকডাউনের মেয়াদ শেষ হবে ২১ এপ্রিল রাত ১২ টায়।

দ্বিতীয় দফার এই কঠোর লকডাউন শেষ হওয়ার আগেই এর সময়সীমা আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে শোনা যাচ্ছে।

এমন গুঞ্জনের মধ্যেই ব্যবসায়ীরা মার্কেট, দোকান ও ক্ষুদ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি জানালেন।

বিজ্ঞাপন