চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীরাও নিতে পারবে মডার্নার ভ্যাকসিন

১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের জন্য মডার্নার ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপিয়ান মেডিসিন ওয়াচডগ ইএমএ। শুক্রবার এই অনুমোদন দেয় তারা। এর মধ্যদিয়ে মডার্না শিশুদের জন্য অনুমোদন পাওয়া দ্বিতীয় ভ্যাকসিন হলো।

মডার্নার ভ্যাকসিনের নাম উল্লেখ করে সংস্থাটি বলে, ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের মধ্যে স্পাইক্যাভ্যাক্স ভ্যাকসিনের ব্যবহার ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সীদের মতো হবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এই ভ্যাকসিনও চার সপ্তাহের ব্যবধানে দুটি ইনজেকশনের মাধ্যমে দেওয়া হবে।

মে মাসে ফাইজার/বায়োএনটেকের বানানো ইউরোপীয় তরুণদের জন্য প্রথম ভ্যাকসিনের অনুমোদনের পরে অ্যামস্টারডামকেন্দ্রিক এই এজেন্সিটি এই সিদ্ধান্ত দিলো।

বিজ্ঞাপন

ইএমএ জানিয়েছে, ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী ৩ হাজার ৭৩২ জন শিশুর শরীরে স্পাইকভ্যাকের প্রভাব নিয়ে গবেষণা করা হয়।

গবেষণা বলছে, স্পাইকভ্যাক্স ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের মধ্যে তুলনামূলক অ্যান্টিবডি প্রতিক্রিয়া তৈরি করে যা ১৮ থেকে ২৫ বছর বয়সী তরুণ প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে দেখা যায়।

এটি জিনগত উপাদানগুলো ব্যবহার করে করোনাভাইরাসের স্পাইক প্রোটিন তৈরির জন্য মানব কোষগুলোকে নির্দেশনা দেয়। ফলে সেটা হোস্টকে সত্যিকারের সংক্রমণ ছাড়াই প্রতিরোধের প্রতিক্রিয়ার প্রশিক্ষণ দেয়।

বৃহস্পতিবার ইইউ জানায়, ২০০ মিলিয়ন ইউরোপীয়ান পুরোপুরি ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। তা মোট প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যার অর্ধেক। কিন্তু গ্রীষ্মের মধ্যেই ৭০ শতাংশকে ভ্যাকসিন দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রার থেকে কম।