চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১১ প্রতিষ্ঠানে বিশেষ সুবিধা পাবেন নাটকের শিল্পীরা

টিভি নাটকের শিল্পীদের সংগঠন অভিনয় শিল্পী সংঘের সঙ্গে ১১টি প্রতিষ্ঠানের চুক্তি হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আছে হাসপাতাল, মেডিকেল সেবা, রেস্টুরেন্ট, কার ওয়ার্কশপ ও পোশাক ব্র্যান্ড।

শিল্পী সংঘের সদস্য অর্থাৎ যারা নাটকের শিল্পী এবং শিল্পী সংঘের সদস্য তারা এসব প্রতিষ্ঠান থেকে বিশেষ সুবিধা পাবেন। শনিবার বিকেলে রাজধানীর নিকেতনে শিল্পী সংঘের অফিসে এসব প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর হয় শিল্পী সংঘের।

Reneta June

এরমধ্যে আছে বিশ্বরঙ, ইউনিভার্সাল হাসপাতাল, ওয়াটারফল রেস্টুরেন্ট এন্ড কমিউনিটি সেন্টার বাংলামোটর ও বনানী শাখা, সিইএলও রুফটপ বাড্ডা, বনানী ও পরীবাগ শাখা, ওমেন্স ক্লাব মেকওভার এন্ড লেজার, চেজ মটরস, কাচ্চিভাই, রকমারি.কম, পিজ্জু, লেক ভিউ ডায়াগনস্টিক এন্ড ডক্টরস চেম্বার ও থাইরো কেয়ার।

বিজ্ঞাপন

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সেখানে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সংঘের সভাপতি আহসান হাবিব নাসিম, সাধারণ সম্পাদক রওনক হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজনীন হাসান চুমকি, জামিল হোসেন, প্রচার সম্পাদক প্রাণ রায়, আইন ও কল্যাণ সম্পাদক ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, অনুষ্ঠান সম্পাদক রাশেদ মামুন অপু, কার্যনির্বাহী সদস্য শামস সুমনসহ আরও অনেকে।

সভাপতি আহসান হাবীব নাসিম বলেন, ‘আমরা এই কমিটির মেয়াদকাল পর্যন্ত এই প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে চুক্তি করেছি। সদস্যদের সেবা দিতে আমরা সবসময়ই আন্তরিকভাবে চেষ্টা করি। নির্বাচনের আগে বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, সেগুলো বিভিন্ন ধাপে কাজ করে যাচ্ছি।’

সাধারণ সম্পাদক রওনক হাসান বলেন, ‘যারা আমাদের ভোটের মাধ্যমে তাদের সেবা করার জন্য দায়িত্ব দিয়েছেন আমরা চেষ্টা করি সেই দায়িত্ব পালন করতে। যার একটি প্রচেষ্টা এই আয়োজন৷ নানা রকম সেবামূলক প্রতিষ্ঠান থেকে আমাদের সদস্যরা বিশেষ সুবিধা পাবেন। আমরা এভাবে সবসময় আমাদের সদস্যের বিপদে আপদে সুখে দুঃখে পাশে থাকবো।’

আইন ও কল্যাণ সম্পাদক ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর বলেন, একটি মানবিক উদ্যোগ বলবো আমি এটিকে। সদস্যরা নানাভাবে উপকৃত হবেন। স্বাস্থ্যসেবা, খাবার সেবা, পোশাক, বই পড়াসহ অনেক সুবিধা পাবেন আমাদের শিল্পীরা।

শনিবার চুক্তি স্বাক্ষরের পর থেকে ৩ বছরের জন্য ১১টি প্রতিষ্ঠান বিশেষ ছাড়ে সুবিধা দেবে অভিনয় শিল্পী সংঘের সদস্যদের। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা উপস্থিত থেকে জানান, শিল্পী সংঘের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে তারা আনন্দিত হয়েছেন।

বিশ্বরঙের কর্ণধার বিপ্লব সাহা বলেন, শুরু থেকেই আমি শিল্প ও শিল্পীদের সঙ্গে ছিলাম। শিল্পী সংঘের এমন চমৎকার উদ্যোগের সঙ্গে থাকতে পেরে বিশ্বরঙ অফিসিয়ালি যুক্ত হতে পারায় আমি ভীষণভাবে আনন্দিত। আশা করি আমাদের একসঙ্গে এই পথচলা সুগম হবে।

ছবি: নাহিয়ান ইমন