চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১১ জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

উজানে মুষলধারে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা অববাহিকায় বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বাড়ার ফলে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, জামালপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী, ফরিদপুর ও শরীয়তপুর জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। 

বন্যাকবলিত এসব জেলায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সরকারি বরাদ্দ অনুসারে বন্যার্তদের মাঝে নগদ অর্থসহ ত্রাণ সরবরাহ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বুধবার সকাল ৯টা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের এক বুলেটিনে আজ জানানো হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা অববাহিকায় বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বৃদ্ধির প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া আজ সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, পদ্মা, ধলেশ^রী ও আত্রাইসহ দু’টি অববাহিকার প্রধান নদ-নদীর পানি ১৯টি স্থানে বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

অপরদিকে কুশিয়ারা ছাড়া মেঘনা অববাহিকার অন্যান্য নদ-নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় এ অববাহিকার নদ-নদীগুলোর পানি-হ্রাসের এই প্রবণতা অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়মিত পর্যবেক্ষাণাধীন ১০৯টি পানি পর্যবেক্ষণ স্টেশনের মধ্যে (বুধবার সকাল ৯টা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায়) সর্বশেষ পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী ৬৮টি পয়েন্টে পানি বেড়েছে ও কমেছে ৪০টিতে এবং ১টিতে পানি অপরিবর্তিত ছিল।