চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১০ ডিসেম্বর থেকে ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করছে ভিয়েতনাম

১০ ডিসেম্বর থেকে করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম স্টেজের হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করেছে ভিয়েতনাম।  দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে।

শনিবার দেশটির কোভিড -১৯ ভ্যাকসিন নির্মাতাদের সাথে বৈঠকে স্বাস্থ্য উপ-উপমন্ত্রী এনগুইন থানহ লং এ তথ্য জানিয়েছেন।  ন্যানোজেন ফার্মাসিউটিক্যাল বায়োটেকনোলজি সংস্থাটি এ ভ্যাকসিনটি তৈরি করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সংস্থাটি বৃহস্পতিবার মানব পরীক্ষার প্রথম পর্যায়ে অংশ নিতে স্বেচ্ছাসেবীদের নির্বাচনের জন্য সামরিক মেডিকেল একাডেমির সাথে কাজ করবে। স্বেচ্ছাসেবীদের এক সপ্তাহ পরে ভ্যাকসিনের প্রথম পরীক্ষার ডোজ দেওয়া হবে।

মন্ত্রী জানিয়েছে, প্রায় ২০ জন ১৮-৪০ বছরের স্বেচ্ছাসেবীদের নির্বাচন করা হয়েছে যাদের প্রথম ধাপে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।  এরপরে তাদের দ্বিতীয় ধাপের হিউম্যান ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য প্রস্তুত করা হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য সমস্ত অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি করবে। প্রশাসনিক পদ্ধতি শিথিল করা এবং পণ্য নিবন্ধকরণ ও লাইসেন্স দ্রুত করা হবে।  মন্ত্রণালয় ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য বিনিয়োগ নীতিটি সরকারের কাছে জানাবে এবং ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা ও উত্পাদনের জন্য মূলধন সহায়তা করার জন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির সাথে সমন্বয় করবে।

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভ্যাকসিনটি পেতে আমাদের সকল পর্যায়ে সক্রিয় হওয়া দরকার বলে জানিয়েছেন তিনি।
ভিয়েতনামের চারটি কোভিড ভ্যাকসিন রয়েছে যা ন্যানোজেন, ভ্যাবিওটেক, পলিভ্যাক এবং ইনস্টিটিউট অফ ভ্যাকসিনস অ্যান্ড মেডিকেল বায়োলজিক্যালস (আইভিএসি) এর বর্তমানে গবেষণার অধীনে রয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এর আগে ন্যানোজেনের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের পরীক্ষাগারের সফলতা এবং প্রাণীর দেহে পরীক্ষার সফলতার কথা জানিয়েছিল।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গবেষণা ও উৎপাদন কার্যক্রম প্রচার করেছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, একই সাথে বিদেশী ভ্যাকসিন উৎপাদকদের সাথে সহযোগিতা, বিনিময় এবং আলোচনা বাড়িয়ে শিগগিরই দেশীয় চাহিদা মেটাতে ভ্যাকসিন উৎপাদক সংস্থাগুলোর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।