চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১০ টাকায় বাজার পেলো ১০০ অসহায় পরিবার

মাত্র ১০ টাকার বিনিময়ে প্রয়োজনীয় বাজার পেয়েছে ১০০টি অসহায় পরিবার। ঢাকা জেলার কেরাণীগঞ্জ উপজেলার ঘাটারচর এলাকায় করোনাভাইরাসের এই সময়ে বিপাকে পড়া পরিবারগুলোর জন্য প্রচেষ্টা শান্তি সংঘ আয়োজন করেছে এমন বাজারের।

অসহায় পরিবারগুলো ১০ টাকার বিনিময়ে পাওয়া বাজারের মধ্যে ছিলো ১ কেজি আটা, ১ কেজি চাল, ১ প্যাকেট নুডলস, দুটি ডিম ও ১ প্যাকেট বিস্কুট। শাক-সবজির মধ্যে ছিল, ১ পিস মিষ্টি কুমড়া, আধা কেজি ঢেঁড়স, ১ আটি পুই শাক, শাপলা ১ আটি ও ‍দুটি লেবু।

বিজ্ঞাপন

সংগঠনটির একক প্রচেষ্টায় শুক্রবার ঘাটারচরের ওলামানগর ন্যাশনাল উচ্চ বিদ্যালয় স্কুল মাঠে এই বাজার আয়োজন করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাসের প্রকোপে কর্মহীন হয়ে পড়া এই পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়াতে নাম মাত্র মূল্যে খাদ্যসামগ্রী সরবরাহ করে প্রচেষ্টা শান্তি সংঘ। দুস্থ ও সুবিধাবঞ্চিত ছাড়াও বেশ কয়েকটি নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারও সহায়তা নিয়েছে। মানুষ যাতে ত্রাণ সামগ্রী না ভাবে, তাই মাত্র ১০ টাকার বিনিময়ে এই আয়োজন করা হয়।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রবিউল আলম হাসিব বলেন, লকডাউন শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কেরাণীগঞ্জের বিভিন্ন প্রান্তে আমরা মানুষের প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করেছি। আজকের আয়োজনটি সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আয়োজন করেছি। সবার সহযোগিতা পেলে এমন আরও আয়োজন অব্যাহত রাখতে চাই।

প্রচেষ্টা শান্তি সংঘের সহ-সভাপতি কাউসারুজ্জামান রনি বলেন, চার মাস ধরে সংগঠনের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচি করা হয়েছে। খাদ্য সামগ্রী ছাড়াও বিনামূল্যে মাস্ক, সাবানসহ সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছি। শুরুতে অনেকেই এগিয়ে এসেছিলেন। যাদের মাধ্যমে আমরা একটি ফান্ড গঠন করেছিলাম। আজকের ইভেন্টে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। আপাতত আমাদের ফান্ড কমে এসেছে। মানুষের কল্যাণে আমাদের সঙ্গে যদি কেউ সম্পৃক্ত হতে চান তাহলে তাদের স্বাগত জানাই। ইচ্ছা আছে সপ্তাহে একদিন করে এমন নাম মাত্র মূল্যে খাদ্য সামগ্রীর বাজার আয়োজন করার।

সংগঠনের কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। কাউসারুজ্জামান রনি বলেন, প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকা দীর্ঘ হচ্ছে। প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হয়ে ঘরে থাকুন। স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিরাপদে থাকুন।