চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

হোম অফিস থেকে অফিস গিয়ে কাজের নির্দেশে অ্যাপলকর্মীর পদত্যাগ

বিজ্ঞাপন

করোনা পরিস্থিতিতে প্রায় সব ক্ষেত্রেই কর্মীদের কাজের ধরন বদলেছে। দৈনন্দিন জীবনের অঙ্গ হয়েছে ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’। তবে করোনার চোখরাঙানি যেই খানিকটা কমেছে, বেসরকারি সংস্থাগুলো পুনরায় তাদের কর্মীদের অফিসে গিয়ে কাজ করার জন্য নির্দেশ দিতে শুরু করেছে। আর তাতেই হয়েছে বিপত্তি। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে পুনরায় অফিসে গিয়ে কাজ করতে হবে শুনে অনেক কর্মীই তাঁদের চাকরি থেকে পদত্যাগ করছেন।

তবে এখনো একদল কর্মী অফিসে গিয়ে কাজ করতে হবে শুনে বেশ উৎসাহিত। অপর দিকে এমন অনেকেই আছেন যাদের মধ্যে অফিসে যাওয়া নিয়ে বেশ অনীহা দেখা দিয়েছে। তাঁদের ধারণা অফিসে গেলে তাঁদের কর্মক্ষমতা কমে যাবে। শুধু তাই নয়, নিয়মিত অফিস যাতায়াতের জন্য তাঁদের অনেকটা সময় অযথা নষ্ট হবে।

pap-punno

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, অ্যাপলের মেশিন লার্নিং ডিরেক্টর, ইয়ান গুডফেলোও এমনই করেছেন। অফিসে ফিরে যেতে হবে শুনে তিনি অ্যাপলের চাকরি ছেড়ে দিতেও দ্বিধাবোধ করেননি। ইয়ানের মতে, এত বড় একটি সংস্থা থেকে কাজ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অ্যাপলের হাইব্রিড কাজের নীতির জন্যেই।

Bkash May Banner

কাজের সুবিধার জন্য অ্যাপল গত মাসে সকল কর্মচারীদের জন্য একটি নোটিশ জারি করে। তাতে জানানো হয়, ২৩ মে থেকে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন অফিস গিয়ে কাজ করতে হবে সংস্থার সব কর্মচারীকেই।

তবে অ্যাপলের নতুন কর্মনীতি ঘিরে কর্মচারীদের মধ্যে বেশ অসন্তোষ দেখা গিয়েছে। অ্যাপল কর্মীরা অফিসে ফিরে আসার খারাপ দিকগুলো উল্লেখ করে অ্যাপলের সিইও টিম কুকের কাছে একটি চিঠি লিখেছিলেন।

ইমেলে কর্মীরা জানিয়েছেন,‘নিজের মতো কাজ করার স্বাধীনতা না থাকলে মুশকিল। নতুন কর্মনীতিতে কাজ করতে হলে আমাদের কাছে দু’টো পথ খোলা থাকবে। হয় আমাদের পরিবার-পরিজন আর নিজেদের ভাল থাকাটা বেছে নিতে হবে, নয় বেছে নিতে হবে এই সংস্থার চাকরি! এই সিদ্ধান্ত নেয়া আমাদের কাছে মোটেই সহজ নয়।’

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View
Bkash May offer