চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘হোমওয়ার্কের নম্বর শিক্ষার্থী মূল্যায়নে গুরুত্ব পাবে’

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, সংসদ টিভিতে প্রচারিত ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর ক্লাস পাঠদান শেষে শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাজ দেয়া হবে, সেই নম্বর ধারাবাহিক মূল্যায়নে বিবেচিত হবে।

রোববার এক অনলাইন ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন। সেসময় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘সংসদ টিভিতে প্রচারিত ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর ক্লাস পাঠদান শেষে যে বাড়ির কাজ দেয়া হয়, শিক্ষার্থীদের আলাদা খাতায় তারিখ অনুযায়ী বাড়ির কাজ সম্পন্ন করতে হবে। এবং স্কুল খোলার পর সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের কাছে জমা দিতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

‘‘বাড়ির কাজের উপর প্রাপ্ত নম্বর ধারাবাহিক মূল্যায়নের অংশ হিসেবে বিবেচিত হবে।’’

মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের ক্লাস সংসদ টেলিভিশনে আজ থেকে শুরু হয়েছে। রুটিন অনুযায়ী সকাল ৯টায় ষষ্ঠ শ্রেণির ইংরেজি ও এরপর বিজ্ঞান বিষয় পাঠদান করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এরপর পর্যায়ক্রমে সপ্তম, অষ্টম ও নবম শ্রেণির পাঠদান চলবে। কোনো শিক্ষার্থী সকালের দিকে টেলিভিশনের সামনে বসতে না পারলে তাদের জন্য দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ক্লাসগুলো পুনঃপ্রচারের ব্যবস্থা আছে।

এর আগে মাধ্যমিক স্তরের সকল শিক্ষার্থীকে এসব ক্লাস করার নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। টেলিভিশনের সামনে বসে ক্লাস করার সঙ্গে সঙ্গে প্রতিদিনের হোম ওয়ার্ক (বাসার কাজ) করতে বলা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবুল খায়ের স্বাক্ষরিত এ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী নভেল করোনাভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করায় পুরো বিশ্ব আজ প্রায় অচল। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও হানা দিয়েছে এ ভয়াবহ করোনাভাইরাস। এর ফলে বন্ধ রয়েছে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম। প্রাথমিক থেকে সকল পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার ফলে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম যাতে ব্যাহত না হয় সেজন্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য দক্ষ শ্রেণি শিক্ষকদের ক্লাসের ভিডিও ধারণ করে সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশনের মাধ্যমে সম্প্রচারের ব্যবস্থা করেছে।

প্রত্যেক শিক্ষার্থী বাসায় বসেই টিভির মাধ্যমে ক্লাসে অংশ নিতে পারবে। ২৯ মার্চ থেকে শুরু হবে এ পাঠদান কার্যক্রম। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ পাঠদান কার্যক্রম চলবে।