চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভোটে হেরেছি বলে কাজ করবো না?: মানুষের পাশে সায়ন্তিকা

টলিউডের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা সায়ন্তিকা ব্যানার্জী। গেল বিধান সভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া থেকে তৃণমূলের হয়ে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন। হেরে গেছেন খুব কম ভোটের ব্যবধানে! ভোটে হারার পর সাধারণত সেই প্রার্থীকে মানুষের মধ্যে পাওয়া না গেলেও ব্যতিক্রম এই নায়িকা!

ভোটের আগে বাকুড়ার মানুষকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, সুখে-দুঃখে পাশে থাকবেন। ভোটের লড়াইয়ে হারলেও তার সেই প্রতিশ্রুতি যে শুধু মুখের কথা ছিল না তা প্রমাণ করে দিচ্ছেন এই টলি নায়িকা। করোনার এই দুঃসময়ে তিনি থাকছেন সর্বাগ্রে! বাঁকুড়াবাসীদের জন্য অক্সিজেন, খাবার এবং সেফ হোমের ব্যবস্থা করেছেন সায়ন্তিকা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি সেই অঞ্চলের একটি গ্রামের করোনা আক্রান্ত ২১টি পরিবারের দায়িত্ব নিলেন সায়ন্তিকা। তাদের অসুস্থতার খবর জানা মাত্রই পৌঁছে দিয়েছেন সবরকমের খাদ্যদ্রব্য। আক্রান্তদের জন্য অত্যাবশ্যকীয় ওষুধেরও ব্যবস্থা করেছেন ভোটে পরাজিত এই প্রার্থী।

দিন কয়েক আগেই বাঁকুড়ার মানুষের জন্য সায়ন্তিকা নিয়ে এসেছেন ‘দুয়ারে অক্সিজেন’ পরিষেবা। হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করলেই অক্সিজেন পৌঁছে যাচ্ছে করোনা আক্রান্তের বাড়িতে। ভোটে হেরেও যে উদ্যম নিয়ে কাজ করছেন সায়ন্তিকা তাতে হতবাক অনেকেই! এ ব্যাপারে এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, ‘মাত্র ৭৩৫ ভোটে হেরেছি আমি। তা হেরে গিয়েছি বলে কী কাজ করব না? তবে হ্যাঁ, জিতে গিয়ে পদটা পেলে কাজ করতে সুবিধা হত’।

কিছুটা আক্ষেপ, আর অনেকটা আত্মবিশ্বাসের সুরেই যোগ করলেন, ‘এখন নির্বাচন হলে হয়ত আমাকে জেতানোর জন্য মানুষের কাছে অনুরোধটুকুও আর করতে হত না, এমনই মানুষ ভোট দিত’।