চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হুয়াওয়ে ক্লাউডে প্রথম ‘ভার্চুয়াল মানুষ’

হুয়াওয়ে ক্লাউডে প্রথম ভার্চুয়াল মানুষ ইয়ুনশেং যুক্ত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হুয়াওয়ে ক্লাউড ও হুয়াওয়ে কনজ্যুমার ক্লাউড সার্ভিসের প্রেসিডেন্ট ঝ্যাং পিং’য়ান।

এছাড়াও হুয়াওয়ে ক্লাউড স্ট্যাক ৮.১ সহ নতুন ১০টি সেবা সম্প্রসারণের ঘোষণা দেন তিনি হুয়াওয়ে কানেক্ট ২০২১ –এর এই সপ্তাহে । সারা বিশ্বে হুয়াওয়ের কর্মপরিধিতে আরও দু’টি অঞ্চলের ব্যাপারেও ঘোষণা আসে এই অনুষ্ঠানে।

গত চার বছরে হুয়াওয়ে ক্লাউডে ২৩ লাখ ডেভেলপার, ১৪ হাজার কনসাল্টিং পার্টনার, ৬ হাজার টেকনিক্যাল পার্টনার যুক্ত হয়েছেন এবং ক্লাউড থেকে সাড়ে চার হাজার মার্কেটপ্লেস সংশ্লিষ্ট পণ্য উন্মোচন করা হয়েছে। ডিজিটাল রূপান্তরে ইন্টারনেট প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের জন্য হুয়াওয়ে ক্লাউড গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্মে পরিণত হয়েছে এবং ডিজিটালাইজেশনের পথে ক্রমান্বয়ে নানা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ক্লাউডের সাথে যুক্ত হচ্ছে।

হুয়াওয়ে ক্লাউডের ডিজিটাল কন্টেন্ট প্রোডাকশন লাইনের ওপর ভিত্তি করে হুয়াওয়ে ক্লাউডে যুক্ত হতে হুয়াওয়ে ক্লাউড এই প্রথম ভার্চুয়াল মানুষ – ইয়ুনশেং – তৈরি করেছে।

অন্যদিকে, দ্রুতগতিতে ইমেজ রেন্ডারিং -এর ক্ষেত্রে দশ হাজার কোর কম্পিউটিং পাওয়ার সক্ষমতার বিশ্বের সর্ববৃহৎ রেন্ডারিং বেজ হুয়াওয়ে ক্লাউডে যুক্ত হয়েছে নতুন দুই রিজিওন – উলানকাব ও মেক্সিকো। ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যেই বিশ্বজুড়ে ১৭০টির বেশি দেশে ২৭টি ভৌগলিক অঞ্চলে ৬১টি অ্যাভাইলেবিলিটি জোনে (এজে) কার্যক্রম পরিচালনা করবে হুয়াওয়ে ক্লাউড ও এর পার্টনাররা।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে অপ্টভার্স, এআই সলভার, পাঙ্গু ড্রাগ মলিকিউল মডেল, ব্লকচেইন সার্ভিস ও ফাংশনগ্রাফ ফাংশন কম্পিউটিং সার্ভিসের মতো নতুন প্রযুক্তি উন্মোচন করা হয়। এর পাশাপাশি, ঝ্যাং হুয়াওয়ে ক্লাউড গসডিবি’র আপগ্রেড করার ব্যাপারেও জানান। হুয়াওয়ে ক্লাউড স্ট্যাক ৮.১ -এ আপগ্রেড করা হয়েছে। ১২টি বিভাগে ৮০’র বেশি ক্লাউড সেবাদানের মাধ্যমে একে বিস্তৃত পরিসরের অন-প্রেমিসেস ক্লাউড সেবাদানে উপযোগী করতে এআই ইনফেরেন্স, বিগ ডেটা গভর্নেন্স ও ক্লাউড ডেস্কটপ সহ আটটি সেবা সমর্থন করবে হুয়াওয়ে ক্লাউড স্ট্যাক ৮.১।

ডিজিটাল সফলতার অন্যতম কারণগুলো বোঝাতে ঝ্যাং বেশ কিছু বিষয় তুলে ধরেন। তিনি বলেন, “বিগত ৩০ বছরে, পৃথিবীকে সংযুক্ত করে হুয়াওয়ে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। আগামী ৩০ বছরে ইন্টেলিজেন্ট ভবিষ্যতের জন্য আমরা ক্লাউড ফাউন্ডেশন তৈরি করছি, যেখানে বিশ্বজুড়ে সবার সুযোগ বাড়াতে সেবা হিসেবে কাজ করবে অবকাঠামো, উদ্ভাবনে সেবা হিসেবে কাজ করবে প্রযুক্তি এবং একসাথে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সেবা হিসেবে কাজ করবে দক্ষতা।”

তিনি আরও বলেন, “ডিজিটালাইজেশনে অনেক সুযোগের সম্ভাবনা রয়েছে এবং আমরা সবাইকে ক্লাউড নেটিভ হিসেবে কাজ করার ও ভাবার আহ্বান জানাই। সবকিছুকে সেবা হিসেবে পেতে ডিজিটাল ও এর সম্ভাবনা উন্মোচন করতে হবে।”

২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ অক্টোবর অনলাইনে হুয়াওয়ে কানেক্ট আয়োজন করছে হুয়াওয়ে। ‘ডাইভ ইনটু ডিজিটাল’ প্রতিপাদ্যে এ বছর এ আয়োজন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। হুয়াওয়ে কানেক্ট আয়োজনে ক্লাউড, এআই ও ফাইভজি সকল শিল্পখাতে ব্যবহারে এবং কীভাবে এ প্রযুক্তিগুলো প্রতিষ্ঠান সমূহের কার্যক্রমকে আরও কার্যকরী করে তোলার মাধ্যমে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে ভূমিকা রাখতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করা হবে।

ভিডিওতে দেখুন:

বিজ্ঞাপন