চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হুইল চেয়ারে বসে প্রচারণায় ফিরছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে তার আহত হওয়া নিয়ে ভারতের রাজনীতিতে তোলপাড়ের মধ্যে তিনি নিজের কর্মী-সমর্থকদের আশ্বস্ত করলেন। বৃহস্পতিবার হাসপাতালে শুয়ে এক ভিডিও বার্তায় তিনি জানিয়েছেন, কয়েক দিনের মধ্যেই প্রচারে ফিরবেন তিনি। সঙ্গে দলের কর্মীদের শান্ত থাকতে অনুরোধ করেন তিনি। তবে ভিডিওতে হামলা বা ষড়যন্ত্রের কথা বলেননি মমতা।

হিন্দুস্থান টাইমস এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ভিডিওতে বলেন, ‘আমি গাড়ির বনেটের ওপর দাঁড়িয়ে নমস্কার করছিলাম। তখন এত জোরে চাপ আসে যে পুরো গাড়িটা চেপে যায় আমার পায়ের ওপর। সেই সময় আমার কাছে যা ওষুধ ছিল খেয়ে কলকাতার দিকে রওনা হই। তার পর থেকে ডাক্তারদের চিকিৎসাধীন আছি।’

বিজ্ঞাপন

সমর্থকদের মমতা অনুরোধ করে বলেন, ‘আমি অনুরোধ করবো সবাইকে যে শান্ত থাকুন, সংযত থাকুন, ভাল থাকুন। আর এমন কিছু করবেন না যাতে সাধারণ মানুষের সমস্যা হয়’।

মমতা আরও বলেন, ‘আমি আশাকরি দুই তিন দিনের মধ্যেই নিজের ফিল্ডে ফিরে যেতে পারবো। তবে হয়তো পায়ের প্রবলেম থাকবে। কিন্তু আমি ম্যানেজ করে নেবো। আমি মিটিং নষ্ট করবো না। তবে হয়তো কিছুদিন আমাকে হুইল চেয়ারে করতে হবে। সেটা আপনাদের সহযোগিতা চাই’।

বুধবার নন্দীগ্রামে ভোট প্রচারের সময় আহত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চলন্ত গাড়ির খোলা দরজা পায়ে চেপে গিয়ে আহত হন তিনি। তার আহত হওয়ার ঘটনায় তৃণমূল নেতা শেখ সুফিয়ানের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের করেছে জেলা পুলিশ। ওই ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ৩৪১ ও ৩২৩ ধারায় মামলা হয়েছে। যদিও জেলা পুলিশের প্রাথমিক রিপোর্টে কোনও হামলার উল্লেখ নেই।