চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘হাসু থেকে বিশ্বনেত্রী শেখ হাসিনা’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭২তম জন্মদিন উপলক্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পালিত হচ্ছে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হল প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজন করা হয়েছে দিনব্যাপী স্থিরচিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় “হাসু থেকে শেখ হাসিনা” শিরোনামে শেখ হাসিনা হল প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন: মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাঙালির গর্ব। শেখ হাসিনা বাঙালির উৎসাহ, উদ্দীপনা ও সাহসের প্রতীক। তাঁর মানবতাবাদী খ্যাতি ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বময়। আমরা সেই খ্যাতির সহযোগী। বাঙালির প্রতি শেখ হাসিনার যে ভালবাসা, সেই ভালবাসার মধ্যদিয়ে তাঁর জীবন অতিক্রম করুন। তাঁর নেতৃত্বে বাঙালি জাতি, সমাজ, সংস্কৃতি বিশ্বে মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান অর্জন করবে, বাঙালি জাতি সেই আশা পোষণ করে।

উপাচার্য তাঁর বক্তব্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জাতির জনকের এ কন্যাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। স্থিরচিত্র উদ্বোধন শেষে উপাচার্য হলের শিক্ষার্থীদের জন্য ‘শেখ হাসিনা হল গ্রন্থাগার’ উদ্বোধন করেন।

বিজ্ঞাপন

“শেখ হাসিনা হল গ্রন্থাগার” উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক বশির আহমেদ হল প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকলকে শেখ হাসিনার জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সুযোগ্য ও বিচক্ষণ নেতৃত্বে বাংলাদেশকে আজ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করেছেন। বাঙালি জাতি তাঁর নেতৃত্বে সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নূরুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক, রেজিস্টার (ভারপ্রাপ্ত) রহিমা কানিজ’সহ অন্যান্য হলের প্রভোস্ট, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭২তম জন্মদিন উপলক্ষে সন্ধ্যায় শেখ হাসিনা হল প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা, ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শৈশব কাটে পিত্রালয়ে। শৈশব থেকেই তিনি ছিলেন মা-বাবা ও দাদা-দাদির আদরের। আদর করে সবাই তাকে ‘হাসু’ বলে ডাকতেন।

হাসুর শৈশব বাংলার সবুজ শ্যামল প্রকৃতির সঙ্গে মিশে আছে। ছোট বেলা থেকেই ‘হাসু’ ছিলেন বুদ্ধিমতী ও সবার প্রিয়। খেলার সঙ্গীদের সঙ্গে গ্রামীণ খেলাধুলা আর হৈ হুল্লোড় করে কেটেছে হাসুর শৈশব। শিক্ষাজীবনের সূচনাও ঘটে টুঙ্গীপাড়ার এক পাঠশালায়।

শৈশবে সবার সেই আদরের ‘হাসু’ আজকের সফল প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বনেত্রী শেখ হাসিনা হয়ে উঠেন। প্রধানমন্ত্রীর শৈশব থেকে বিশ্বনেত্রী হয়ে ওঠার নানান স্মৃতি ও মুহূর্তের ছবি দিনব্যাপী কর্মসূচির স্থির চিত্র প্রদর্শনীতে স্থান পায়।

বিজ্ঞাপন