চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হাসপাতালে যেমন আছেন করোনা আক্রান্ত ফারুক

সিঙ্গাপুর থেকে যক্ষ্মার চিকিৎসা নিয়ে দেশে ফেরার ১৫ দিনের মাথায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন চিত্রনায়ক ও ঢাকা ১৭ আসনের এমপি ফারুক। বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন আছেন রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের ভিআইপি কেবিনে।

রবিবার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ পেলে দেরি না করে সোমবার বিকেল ৫ টার দিকে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন।

বিজ্ঞাপন

নায়ক ফারুকের পারিবারিক ব্যক্তিগত সহকারী কাজল মিয়াঁর সঙ্গে যখন আলাপ হচ্ছিল তখন তিনি হাসপাতালেই ছিলেন।

মঙ্গলবার দুপুরে তিনি চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, স্যারের খাবারে কিছুটা অরুচি রয়েছে। তবে সকালে নাস্তা করেছেন। দুপুরের খাবার খেয়েছেন। মোটামুটি খেতে পারছেন। শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। তবে স্যার সামান্য টেনশন করছেন। ভাবি স্যারকে দেখার জন্য হাসপাতালেই অবস্থান করছেন।

‘হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগিডিয়ার জেনারেল জামিল সাহেব স্যারকে দেখেছেন। বলেছেন, ভয়ের কোনো কারণ নেই। এমনিতে স্যারের শরীরের এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যা নেই। এমনকি তার অক্সিজেনও স্বাভাবিক। তবে বড় কোনো দুর্ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য আগেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

২০ অক্টোবর সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরার পর করোনা টেস্ট করিয়ে ৮ নভেম্বর সংসদে গিয়েছিলেন নায়ক ফারুক। তখন রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। ১৪ নভেম্বর সকাল ১১ টায় ভাসানটেন সরকারি কলেজে বঙ্গবন্ধুর মোরাল উদ্বোধন করেন তিনি। কাজল মিয়াঁ বলেন, শরীর খারাপ ছিল। তারপরও বঙ্গবন্ধুর মোরাল উদ্বোধনের কথা শুনে স্যার অসুস্থতা তোয়াক্কা করেননি। তবে উদ্বোধন করে সেখানে বেশিক্ষণ থাকেননি। তারপর বাসায় এসে কিছুটা অসুস্থতা বোধ করেন।

রবিবার ইউনাইটেড হাসপাতাল থেকে করোনা পরীক্ষা করান নায়ক ফারুক। এরপরেই তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।