চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হার্ড ইমিউনিটি থাকলেও সংক্রমণ ছড়াতে পারে করোনা নেগেটিভ রোগী

কোভিড-১৯ থেকে মুক্তি পেলে করোনা রোগীর পাঁচমাসের একটি অ্যান্টিবডি ইমিউনিটি বা করোনা প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে। কিন্তু ব্রিটিশ স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের একটি গবেষণায় দেখা গেছে হার্ড ইমিউনিটির প্রমাণ মিললেও অ্যান্টিবডিগুলো এখনও ভাইরাসটি বহন করতে এবং সংক্রমণ ছড়িয়ে দিতে পারে।

রয়টার্সের তথ্যমতে, পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড ( পিএইচই) বিজ্ঞানীদের প্রাথমিক গবেষণায় দেখা গেছে যে অতীতে সংক্রমণ থেকে অনেকেই কোভিডে আক্রান্ত হয়েছে। গবেষণায় বলা হয়, ৬ হাজার ৬১৪ জনের মধ্যে এমন রোগী পাওয়া যায় ৪৪ জন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অর্থাৎ কোনো করোনা রোগী আক্রান্তের পর নেগেটিভ রিপোর্ট আসলেও সেই ব্যক্তিও করোনা সংক্রমণ ছড়াতে পারে।

গবেষকদের দাবি, করোনা রোগী ভাইরাসের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডি তৈরি করে প্রতিরোধ গড়ে তুললেও ৯০ দিন পর তা একেবারে উধাও হয়ে যাচ্ছে। ফলে তাদের ফের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ও থেকেই যাচ্ছে।

ইনফ্লুয়েঞ্জার ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটতে পারে। ফলে দ্বিতীয়বার কেউ করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর যদি দেখা যায় তার দেহে করোনা প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি নেই তা হলে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই।