চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হামলার আশঙ্কায় ক্যাপিটল হিলে বাড়তি নিরাপত্তা

আবারও হামলার আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার সেখানে বাড়তি নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্যাপিটল হিল পুলিশ। 

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, একটি মিলিশিয়া গ্রুপের হুমকি বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থা সতর্ক করলে বাড়তি নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

নিরাপত্তাবাহিনী জানিয়েছে, তারা কংগ্রেস সদস্যদের উপর যে কোনো ধরনের সম্ভাব্য হামলা প্রতিরোধে প্রস্তুত।

হুমকির বিষয়ে তথ্য জানার পরই বৃহস্পতিবার অধিবেশন বাতিল করে দেয় প্রতিনিধি পরিষদ। তবে ক্যাপিটলে সমবেত হওয়া সিনেট সদস্যরা জো বাইডেনের ১.৯ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের করোনাভাইরাস ত্রাণ বিল নিয়ে বিতর্ক চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন।

ক্যাপিটল পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, যে কোনো ধরনের হুমকি রোধে আমাদের বিভাগ স্থানীয়, রাষ্ট্রীয় ও ফেডারেল সহযোগিদের সঙ্গে কাজ করছে। আমরা গোয়েন্দাবাহিনীকে খুবই গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি।

বিজ্ঞাপন

তবে যেহেতু বিষয়টি স্পর্শকাতর, তাই এই মুহূর্তে এই বিষয়ে আর কোনো বিস্তারিত তথ্য দিতে পারছি না।

ট্রাম্প সমর্থকদের ক্যাপিটল হিলে হামলা চালানোর দুই মাস পরে আবার এই ধরনের হুমকি এলো।  জানুয়ারিতে জো বাইডেনের জয় নিশ্চিত করতে নির্বাচিত আইনপ্রণেতারা ভবনের ভেতরে থাকার সময়েই ওই হামলা চালানো হয়।

গত ৬ জানুয়ারি মার্কিন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন শুরুর এক ঘণ্টার মধ্যে কংগ্রেস ভবনে হামলা চালায় ট্রাম্প-সমর্থকরা।

ওই হামলায় পুলিশ অফিসারসহ পাঁচজন মৃত্যুবরণ করে। তাতে নড়ে যায় আমেরিকান গণতন্ত্রের ভিত্তিও। পরে ক্যাপিটাল হিল পুলিশ বাহিনীর প্রধান পদত্যাগ করতে বাধ্য হন।

মার্কিন বিচার বিভাগ ওই হামলায় অংশ নেওয়ার জন্য ৩০০ জনের বেশি লোককে অভিযুক্ত করে। গ্রেপ্তারকৃতরা ছিলো ডানপন্থী মিলিশিয়াবাহিনী ওথ কিপারস এবং থ্রি পার্সেন্টারের সদস্য।