চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হামলাকে ‘বিদ্রোহ’ বললেন বাইডেন

ক্যাপিটাল ভবনে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকদের হামলার ঘটনাকে ‘বিদ্রোহ’ বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। 

একটি বিশেষ গোষ্ঠীর তৈরি ‘সঙ্কটপূর্ণ পরিস্থিতি’কে তিনি ‘হিংসাত্মক আক্রমণ’ আখ্যা দিয়ে বলছেন, ‘এটি নজিরবিহীন গুণ্ডাগিরি।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ঘটনার পর জো বাইডেন বলেন, ‘এই সময়ে আমাদের গণতন্ত্র নজিরবিহীনভাবে দৈন্য পরিস্থিতিতে পড়েছে।’

দেশটির আইনসভা কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন চলার সময় ক্যাপিটল ভবনে ওই তাণ্ডবের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জো বাইডেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে পদক্ষেপ নেওয়ারও পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে এখনই কোনও জাতীয় টিভি চ্যানেলে গিয়ে এই হিংসা থেকে মানুষকে বিরত থাকতে আহ্বান করা উচিত।’

বিজ্ঞাপন

ক্যাপিটাল ভবনে এমন হামলার ঘটনাকে নিছক প্রতিবাদ বলতে নারাজ বাইডেন।

তিনি বলেছেন, ‘ক্যাপিটলের ভিতর দাপিয়ে বেড়ানো, জানালা ভাঙা, অফিস দখল করা, আইন প্রনেতাদের জীবন সংশয়ের মধ্য দাঁড় করানো- এসবের কোনটাই নিছক প্রতিবাদ নয়। এটি হিংসাত্মক হামলা।’

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা যখন গত নভেম্বরের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জো বাইডেনের জয় আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন করার জন্যে যৌথ অধিবেশনে বসেন, তখন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শত শত সমর্থক সেখানে ঢুকে পড়ে।

তারপর কয়েক ঘণ্টা তাদের দখলে চলে যায় ক্যাপিটল বিল্ডিং। পরে নিরাপত্তাকর্মীরা এসে  বিক্ষোভকারীদের বাইরে বের করে দেয়। সেসময় পুলিশের গুলিতে নিহত হন এক নারী। আহত হন আরও কয়েকজন।

সহিংস এই ঘটনার পর রাজধানী ওয়াশিংটনে স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে ১২ ঘণ্টার কারফিউ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু তারপরও শত শত বিক্ষোভকারীকে রাজপথে জটলা করতে দেখা গেছে।