চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হাজী সেলিমের কারাদণ্ড হওয়া মামলার নথি হাইকোর্টে তলব

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের যে মামলায় সংসদ সদস্য হাজী সেলিমকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল সে মামলার সকল নথি তলব করেছে হাইকোর্ট।

নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে হাজী সেলিমের আপিল দ্রুত শুনানি চেয়ে দুদকের করা আবেদনে শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এই আদেশ দেন। আগামী ৭ ডিসেম্বরের মধ্যে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ কে হাইকোর্টে নথি পাঠাতে বলা হয়েছে। আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। আর হাজী সেলিমের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

নিম্ন আদালতের দণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে হাজী মোহাম্মদ সেলিমের আপিল শুনানির জন্য গত সোমবার হাইকোর্টে আবেদন করে দুদক। সে আবেদনের পর আজ হাইকোর্ট নিম্ন আদালতের নথি তলবের আদেশ দিলেন।

এর আগে ২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করে দুদক।

এরপর ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল এ মামলার রায়ে বিচারিক আদালত ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেন হাজি সেলিমকে। পরে ২০০৯ সালের ২৫ অক্টোবর হাজি সেলিম রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন। ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাইকোর্ট তার ১৩ বছরের সাজা বাতিল করেন। তবে হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আপিল করে দুদক। সে আপিলের শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি হাইকোর্টের রায় বাতিল করার পাশাপাশি হাজি সেলিমের আপিল আবার হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। সর্বোশেষ গত ৯ নভেম্বর দুদক হাজি সেলিমের ১৩ বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে করা আপিলটি শুনানির জন্য হাইকোর্টে আবেদন করে।