চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হাঙ্গরের মুখ থেকে নাটকীয়ভাবে স্ত্রীকে বাঁচালেন স্বামী

স্বামী-স্ত্রী দু‘জন সার্ফিং করছিলেন সৈকতে। এমন সময় সঙ্গীর পা ধরে টান দেয় একটি সাদা হাঙ্গর। সঙ্গে সঙ্গে প্রাণপণে ঝাঁপিয়ে পড়ে হাঙ্গরটিকে আঘাত করে সাহসী স্বামী। কয়েকবার আঘাত করার পর পা ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় হাঙ্গর। স্বামীর সাহসী পদক্ষেপের ফলে স্ত্রী বেঁচে যায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে। এ ঘটনার পর ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন মার্ক নামের ওই ব্যক্তি।

শনিবার অস্ট্রেলিয়ার সিডনি থেকে চার ঘণ্টা উত্তরে ম্যাককুইরি বন্দরের কাছাকাছি এক সৈকতে ঘটে এমন দুর্ঘটনা।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় পুলিশ জানায়, সকালে ম্যাককুইরির ওই সৈকতে সার্ফিং করছিলেন এই দম্পতি। এসময় একটি হাঙ্গর এসে কামড়ে ধরে স্ত্রীর পা। এতে ওই মহিলার পায়ে মারাত্মক জখম হয়।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ আরও জানায়, তার সঙ্গী হাঙ্গরটিকে আঘাত করতে বাধ্য হয়েছে এবং সাহসিকতার সঙ্গে লড়াই করে স্ত্রীকে বাঁচিয়ে দিয়েছে।

৩৫ বছর বয়সী মহিলাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর অস্ত্রোপচারের জন্য স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী একজন বলছেন,  প্রায় ১০ ফুট লম্বা একটি সাদা হাঙ্গর মহিলার পা টেনে ধরে।  কিন্তু তার সঙ্গীর সাহসিকতায় বেঁচে যায় ওই মহিলা।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিটি আরও বলছেন, হাঙ্গরটির সঙ্গে সাহসী ব্যক্তি লড়াই করেছেন। তিনি যেভাবে তার সঙ্গীর জীবন বাঁচালেন তা অবিশ্বাস্য ছিলো।

এই বিষয়ে সাহসী মার্ক বলেন, ওই মুহুর্তে যা করণীয় ছিলো তাই করেছি আমি।

অস্ট্রেলিয়ার সৈকত বিশ্বের হাঙ্গর আক্রমণের শীর্ষ অবস্থান করছে। এ বছর দেশে ৫টি মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

গত মাসেও তাসমানিয়ার সৈকতে মাছ ধরার একটি নৌকা থেকে ১০ বছরের এক শিশুকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলো একটি হাঙ্গর। বাবার সাহসিকতায় ওই শিশুটি সেদিন বেঁচে যায়।