চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হাইকোর্ট মন্তব্য করতেই পারে: ওবায়দুল কাদের

‘আমরা বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড পছন্দ করিনা’, বরগুনায় প্রকাশ্য দিবালোকে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা মামলার শুনানিকালে দুই হাইকোর্টের দুই বিচারকের এমন পর্যবেক্ষণের প্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন: হাইকোর্ট মন্তব্য করতেই পারে। কিন্তু এনকাউন্টার আর ক্রসফায়ার এক বিষয় নয়। সরকার কিংবা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কোন বক্তব্যে আমরা বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হয়েছে এমনটা খুঁজে পাইনি।

শুক্রবার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

ওবায়দুল কাদের বলেন: বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হয়েছে এমনটা সরকার কিংবা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দাবি করেনি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এনকাউন্টারের কথা বলা হচ্ছে। এনকাউন্টার আর ক্রসফায়ার তো এক কথা নয়। বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বলে হাইকোর্ট যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বক্তব্যে আমরা সেটা খুঁজে পাচ্ছি না।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন: সেখানে যে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ঘটেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যেও সেটা কেউ খুঁজে পায়নি। হাইকোর্টের মন্তব্য হাইকোর্ট করেছে।

প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন: স্বাভাবিকভাবেই বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড কেউ কি সমর্থন করে? আমরাও সমর্থন করি না।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ রিফাত হত্যা মামলার অগ্রগতি তুলে ধরেন। এসময় হাইকোর্ট তার পর্যবেক্ষণে বলেন: আমার এক্সট্রা জুডিশিয়াল কিলিং পছন্দ করি না। হয়তো প্রয়োজনের খাতিরে অনেক সময় জীবন বাঁচানোর তাগিদে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তা করে থাকে। তবে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে এ বিষয়ে আরও সতর্ক হতে হবে।

গত ২৬ জুন বরগুনা শহরে প্রকাশ্যে দিবালোকে স্ত্রীর সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাতকে। এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। এরপর গত ২ জুলাই রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়।

Bellow Post-Green View