চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হলিউডের সবচেয়ে ব্যর্থ সিনেমা কোনটি?

১৯৬৩ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমা ‘ক্লিওপেট্রা’ ছিল সেই সময়ের সবচাইতে বড় বাজেটের ছবি। এই ছবির বাজেট ছিল প্রায় ৪৪ মিলিয়ন ডলার যা এখনের ৩৬৫ মিলিয়ন ডলারের প্রায় সমান। কিন্তু ছবিটি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে।

এই ছবির জন্য ‘টুয়েন্টিথ সেঞ্চুরি ফক্স’-এর এতটাই ক্ষতি হয় যে তাদেরকে অনেক জমি বিক্রি করতে হয়েছিলো সেই সময়ে। তাহলে এটাই কি সবচাইতে ব্যর্থ সিনেমা হলিউডের ইতিহাসে? উত্তর হলো, মোটেই না!

বিজ্ঞাপন

১৯৯৫ সালের ‘দ্য এলিজাবেথ টেইলর স্টোরি’ বক্স অফিসে ফ্লপের তালিকার প্রথম দিকে আছে। চারটি অস্কার পাওয়া এই সিনেমাটি আয় করেছিলো ৫৭.৮ মিলিয়ন ডলার।

১৯৮০ সালের ‘হেভেনস গেট’ সিনেমাটাকেও বলা হয় লিজেন্ডারি ফ্লপ। ৪৪ মিলিয়ন ডলার খরচ করে নির্মিত এই ছবিটি আয় করেছিল মাত্র ৩.৫ মিলিয়ন ডলার!

তাহলে সবচাইতে ব্যর্থ সিনেমা কোনটি? এটা নিয়ে টস করতে হবে আসলে! ডিজনির ২০১২ সালের সাইন্স ফিকশন ছবি ‘জন কার্টার’ নির্মাণে খরচ হয়েছিল ২৬৩.৭ মিলিয়ন ডলার। মার্কেটিং এর জন্য লেগেছিল আরও ১০০ মিলিয়ন ডলার। কিন্তু ছবিটি পুরো বিশ্বে আয় করেছে মাত্র ২৮৪ মিলিয়ন ডলার!

১৯৯৫ সালের ‘কাটথ্রোট আইল্যান্ড’ ফ্লপ হওয়ার আগ পর্যন্ত অ্যানড্রু স্ট্যান্টনের ‘দ্য কার্টার’কে সবচেয়ে বড় ফ্লপ বলা হতো। ১৯৯৬ সালে প্রকাশিত নিই ইয়র্ক টাইমসের রিপোর্ট অনুযায়ী ‘কাটথ্রোট আইল্যান্ড’ ছবিটি পুরো বিশ্বে ১৫.৭ মিলিয়ন ডলার আয় করেছিল। কিন্তু ছবিটি নির্মাণে খরচ হয়েছিল ৯৮ মিলিয়ন ডলার। প্রচারণার জন্য খরচ বেড়ে দাঁড়ায় ১১৫ মিলিয়ন ডলার। ফলে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কারোলকো পিকচার্সকে দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়!

বড় বাজেটের ছবি মানেই দর্শকের বাড়তি প্রত্যাশা। আর এই প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হলেই ছবি মুখ থুবড়ে পড়ে বক্স অফিসে। এখন পর্যন্ত এই ব্যর্থতার তালিকায় সবচেয়ে এগিয়ে আছে ‘জন কার্টার।’ -হলিউড রিপোর্টার

Bellow Post-Green View