চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হবিগঞ্জে জমি নিয়ে পৃথক সংঘর্ষে নিহত ২

চৌধুরী মোহাম্মদ ফরিয়াদ, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

হবিগঞ্জে জমি নিয়ে পৃথক ২টি সংঘর্ষের ঘটনায় ২ জন নিহত হয়েছেন। উভয় সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়েছেন ৩০ জন।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ বলছে, হবিগঞ্জ শতরতলীর তীতখাই গ্রামে পতিত জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাশেম আলী গংদের সাথে একই গ্রামের আব্দুল বারিক সর্দার গংদের বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে মামলা মোকাদ্দমা চলে আসছে। আজ বিকেল ৪টার দিকে বিরোধপূর্ণ জমির পুকুরে কাশেম আলী গং মাছের পোনা ছাড়তে যান। এ সময় আব্দুল বারিক সর্দার গং এসে বাধা দেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

সংঘর্ষের খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত অবস্থায় কালাই মিয়া (৫৫) হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সংঘর্ষের আরো ২০জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এ তথ্য নিশ্চিত করে হবিগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রবিউল ইসলাম জানান, জায়গা জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এ সংঘর্ষে ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন নিহত হয়েছেন।

অপরদিকে মাধবপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুপক্ষের সংঘর্ষে মর্তুজ আলী নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। এসময় নারীসহ আহত হয়েছেন আরও ১০জন। সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার হারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তিন জনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, জমি দখল নিয়ে মকবুল ও সামছুল হকের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন লাঠি-সোটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে নারী পুরুষসহ ১০জন আহত হলে গুরুতর আহত অবস্থায় বৃদ্ধ মর্তুজ আলীকে মাধবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়াও ফজলুর রহমান নামে আরেক বৃদ্ধের অবস্থাও আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

মাধবপুর থানার তদন্ত ওসি গোলাম দস্তগীর আহমদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে বলেন, বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষ বাধার খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনা স্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।