চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হত্যাকাণ্ডের স্থান পরিদর্শন করলেন লালমনিরহাটের কমিশনার ও ডিআইজি

লালমনিরহাটের পাটগ্রামের বুড়িমারীতে মাহমুদুন্নবী জুয়েল নামক এক যুবককে হত্যা এবং পরে তাকে আগুনে পুড়িয়ে ফেলার স্থান পরিদর্শন করেন বিভাগীয় কমিশনার মো: ওয়াহেদ মিয়া ও রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্জ।

সাথে উপস্থিত ছিলেন লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক মো: আবু জাফর, পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা, পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমীন বাবুল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন্নাহার।

বিজ্ঞাপন

পরে পাটগ্রাম উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে পাটগ্রাম উপজেলার সকল মসজিদের ঈমাম মোয়াজ্জেনদের সাথে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সচেতনতামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

বিজ্ঞাপন

পরে বিভাগীয় কমিশনার সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ছোট একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে এত বড় হবে এবং সেটি উপস্থিত প্রশাসন তাৎক্ষনিকভাবে সামাল দিতে না পারায় এ ঘটনাটি ঘটে।

ঘটনাটি তদন্তনাধীন রয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে। রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্জ বলেন, এ ঘটনায় ৩ টি মামলা হয়েছে আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাদ বাদী হয়ে ২২ জনের নামসহ অজ্ঞাত ৫ শত জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

শনিবার দুপুর পর্যন্ত ৭জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিহতের ভাই সাইফুল আলম বিপ্লব ও পাটগ্রাম থানার এসআই শাহজাহান বাদী হয়ে একটি করে মামলা করেছেন। তবে সবগুলো মামলাই প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তদন্তনাধীন থাকায় এখনে কিছু বলা যাচ্ছে না।