চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হইচইয়ের নতুন সিজনে বাংলাদেশের পাঁচ নির্মাতা

চার বছর পূর্ণ করে পঞ্চম বর্ষে পা রাখলো পশ্চিম বাংলার সবচেয়ে আলোচিত ওটিটি প্লাটফর্ম হইচই। সে উপলক্ষে শুক্রবার দিলো নতুন ঘোষণা। একঝাঁক নতুনত্ব আর চমক নিয়ে হাজির হচ্ছে এই ডিজিটাল প্লাটফর্ম।

এদিন বিকেল সাড়ে চারটায় একসঙ্গে ২০ টি আসন্ন অরিজিনালস ওয়েব সিরিজের ঘোষণা দিলো হইচই। রহস্য, রোমাঞ্চ, প্রেম, হাস্যরস- বিনোদনের সব রসদ মজুত থাকবে এই অরিজিনালসগুলোতে। পুরোনো সিরিজের নতুন সিজন যেমন আসছে, তেমন একদম আনকোড়া সিরিজও রয়েছে এই ২০ অরিজনিনালসের তালিকায়। তারমধ্যে পাঁচটি কন্টেন্ট নির্মাণ করবেন বাংলাদেশের পাঁচ নির্মাতা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এরমধ্যে আছে ‘তাকদীর’ খ্যাত নির্মাতা সৈয়দ আহমেদ শাওকীর নতুন ওয়েব সিরিজ ‘কারাগার’, ‘মহানগর’ খ্যাত নির্মাতা আশফাক নিপুণ এর ‘সাবরিনা’, ‘আয়নাবাজি’ খ্যাত নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরীর ‘বোধ’, ‘একাত্তর’ খ্যাত তানিম নূর এর ‘কাইজার’ এবং শংখ দাশগুপ্তের ‘বলি’।

নিজের নতুন ওয়েব সিরিজ ‘কারাগার’ সম্পর্কে ধারণা দিতে গিয়ে শাওকী বলেন, কারাগারের গল্পটা একটা রহস্যময় সেল নিয়ে। ৫০১ নম্বর সেই রহস্যময় সেল। যে সেলটি গত ৫০ বছর ধরে বন্ধ। কিন্তু এই সেলে ঘুম ভাঙে একজন রিপ ভেন উইঙ্কেল এর। যে দাবী করে, সে অমর। সে দাবী করে ২০০ বছর ধরে সে জেলে আছে। সেল নম্বর ৫০১, এবং এই মিস্ট্রিম্যানের হিস্ট্রি নিয়ে ওয়েব সিরিজ ‘কারাগার’ এর গল্প।

সাবরিনা নিয়ে আশফাক নিপুণ বলেন, সাবরিনা এমন একজন, যাকে সবাই পেতে চায়। আবার তাকে ভয়ও করে। কেই সাবরিনা? সে কি এমন কিছু জানে, যেটা জানলে অনেকের বড় বড় ক্ষতি হয়ে যাবে? তার কি অলৌকিক কোনো ক্ষমতা আছে? নাকি সে আমার আপনার পাশের বাসার মতো কেউ?

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে বিজ্ঞাপন নির্মাতা শংখ দাশগুপ্ত প্রথমবারের মতো নির্মাণ করছেন ওয়েব কন্টেন্ট। নাম ‘বলি’। এর শুটিং চলছে কুয়াকাটায়। যেখানে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী।

অমিতাভ রেজার ‘বোধ’ ওয়েব সিরিজটির গল্প নিয়ে ইঙ্গিত দেয়া হয় এভাবে, অবসর নেয়ার পর একজন বিচারক যদি তার ভুল বুঝতে পারেন, তখন কি তার আর কিছু করার থাকে? বোধ যদি ঠিক সময়ে না হয়, তাহলে কি তার দাম থাকে?

এছাড়াও রয়েছে হোমিসাইড ডিটেকটিভ কাইজার চৌধুরী। পেশায় পুলিশ এই গোয়েন্দা আবার রক্ত দেখলেই ভয় পান। তাকে নিয়ে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করেছেন ‘কন্ট্রাক্ট’ খ্যাত তানিম নূর। যার সিরিজটির নাম ‘কাইজার’।

শুক্রবার এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে হইচই কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০২২ সালের মধ্যে ১০০টি অরিজিন্যাল কনটেন্ট তৈরির লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমেছে তারা। আগামী দিনে হইচইয়ের পরিসর আরও বাড়ছে।

সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অঞ্জন দত্তের মতো পরিচালকদের ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ারও যেমন হবে এই ওটিটি প্লাটফর্মে, তেমনই হইচইয়ের ৬০০ সিনেমার তালিকাও আরও বাড়ছে আগামিতে।

বিজ্ঞাপন