চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সড়ক দুর্ঘটনায় অভিনেত্রী খুশির বেঁচে যাওয়া ‘মিরাকল’

শুক্রবার ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি। তার বেঁচে যাওয়াকে ‘মিরাকল’ বলছেন ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও সহঅভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী।

করোনাকালিন কোনো শুটিংয়ে অংশ না নিলেও আসন্ন ঈদুল আযহার জন্য ‘নসু ভিলেন’ নামের একটি নাটকে অভিনয়ের সিদ্ধান্ত নেন খুশি। গেল বৃহস্পতিবার এই নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেন তিনি ও চঞ্চল চৌধুরীসহ অনেকে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার এই নাটকের শুটিংয়ে অংশ নিতে পুবাইল যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন খুশি। স্থানীয় মাজুখান বাজারের কাছে এই ঘটনা ঘটে। কাভার ভ্যানের ধাক্কায় তার গাড়িটি ধুমরে ‍মুচড়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার বিষয়টি সামনে না এলেও শনিবার খুশি নিজেই এমন ভয়ংকর দুর্ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘একেবারেই অলৌকিক কিছু না হলে আমার বাঁচার কথা নয়! আমি এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না যে আমি বেঁচে আছি,ভাল আছি!’

চ্যানেল আই অনলাইনকে অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বললেন, এটা একটা কাকতালীয় ঘটনা। কেননা, কোনো নাটকের শুটিং থাকলে আমরা দুজন একসাথেই স্পটে যাই। সাধারণত আমি তাকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাই, কিংবা সে আমাকে গাড়ি দিয়ে এসে তুলে নেয়। কিন্তু শুক্রবার দিন শুটিংয়ে তার কলটাইম ছিলো সকাল ১০ টায়, আর আামার ছিলো ১১টায়। এক ঘন্টা আগে হওয়ায় সে একাই রওনা দিয়েছিলো। আর তারপরই শুনি দুর্ঘটনার খবর!

চঞ্চল চৌধুরী বলেন, খুশির দুর্ঘটনার সংবাদ পাওয়ার পরই সোজা আমি সেই স্পটে যাই। তারপর সারাদিনই এগুলো নিয়ে কেটে গেল। খুশি মানসিকভাবে আতঙ্কিত, আর এটা হওয়ারই কথা। কারণ, একেবারে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসা। এমন ভয়াবহ দুর্ঘটনার পরও তার বেঁচে যাওয়া রীতিমত মিরাকল।

এসময় প্রশ্ন রেখে চঞ্চল চৌধুরী বলেন, আমাদের রাস্তা আর কবে নিরাপদ হবে? আইন অমান্য করা নিয়মে পরিনত হয়েছে, মানুষের জীবনের মূল্য আমরা কবে দিতে শিখবো?

খুশির সর্বশেষ আপডেট জানিয়ে চঞ্চল বলেন, গাড়িটির অবস্থা কেউ দেখলে ভাববেন, এখানে যারা ছিলো সবাই মারা গেছেন! তবে শারীরিকভাবে খুব একটা জখম না হলেও মানসিকভাবে দুর্ঘটনার পর ট্রমাটাইজ হয়ে আছেন খুশি। তবে তাকে নিয়ে শনিবার সকাল থেকে পূবাইলে নাটকের স্পটেই আছেন বলেও জানান এই অভিনেতা।

দুর্ঘটনা নিয়ে অভিনেত্রী খুশির বিস্তারিত পোস্ট: