চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া বক্তব্যে মহাপরিচালকের দুঃখ প্রকাশ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতির স্থায়িত্ব নিয়ে দেয়া বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ।

শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনি তার বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়ে এর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।

বিজ্ঞাপন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদের বক্তব্য নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে মহাপরিচালক গভীরভাবে দুঃখিত।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গতকাল হেলথ বুলেটিনে এসে মহাপরিচালক ডা. আজাদ বলেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অভিজ্ঞতায় এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী, করোনা পরিস্থিতি এক, দুই বা তিন মাসে শেষ হচ্ছে না। এটি দুই থেকে তিন বছর বা তার চেয়েও বেশিদিন স্থায়ী হবে। যদিও সংক্রমণের মাত্রা উচ্চ হারে নাও থাকতে পারে। এ বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্যক উপলব্ধি করেন।’

তার এ বক্তব্যে দেশজুড়ে আলোচনার সৃষ্টি হয়। আজ নাম উল্লেখ না করে এ ধরনের বক্তব্যকে অদূরদর্শী ও দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ বক্তব্য মানুষের মধ্য বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

স্বাস্থ্য অধিপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মহাপরিচালকসহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর একান্তভাবে কামনা করে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে এই মহামারীর দ্রুত অবসান ঘটুক। কিন্তু আমাদের মনোবল ও প্রস্তুতিতে কোনো ঘাটতি রাখা যাবে না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ অনুযায়ী, ‘নয়া স্বাভাবিক জীবনের’ কথা বলা হয়েছে। গতকালের বক্তব্যে মহাপরিচালক এ বিষয়টি বোঝাতে চেয়েছেন।

ডা. আজাদ তার বক্তব্য ভুলভাবে না বোঝার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান। একই সঙ্গে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু প্রতিরোধে সমাজের সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে সহযোগিতার মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।