চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হোক

গতকাল সকাল বেলায় স্থানীয় ভারতি-বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলাম। পথিমধ্যে বেশ কয়েকজন বোরকা পরিহিতা ছোট ছোট মেয়ে (১২/১৩ বছর বয়স হবে) মাদ্রাসায় যাচ্ছিল। এদের মধ্যে একজন সুন্দর করে সালাম দিয়ে জিজ্ঞেস করল,

স্যার কেমন আছেন?

বিজ্ঞাপন

চলন্ত বাইকটি থামিয়ে সালামের জবাব দিয়ে মেয়েটির পরিচয় জানতে চাইলাম।

স্যার, আমি আপনার স্কুলের ছাত্রী ছিলাম। ক্লাস সিক্সে ভর্তি হয়েছিলাম। এখন মহিলা মাদ্রাসায় পড়ি।

স্কুল ছেড়ে মাদ্রাসায় কেন? প্রশ্ন করলাম

স্যার, আপনারা স্কুল লম্বা সময়ের জন্য বন্ধ করে দিয়েছেন। আর খোলেন না! পড়ালেখা নাই। এজন্য আব্বা-আম্মা মাদ্রাসায় ভর্তি কইরা দিছে।

মেয়েটির পরিচয় জেনে তাকে চিনতে পারলাম। দরিদ্র পরিবারের হওয়ায় বাবা-মা’র অনুরোধে ওকে উপবৃত্তির তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

যাইহোক, মেয়েটির ভাষ্যমতে আরো অনেক মেয়েই নাকি স্কুল ছেড়ে এখন মাদ্রাসায় যায়। জানামতে কিছু মেয়ের বিয়েশাদিও নাকি হয়ে গেছে। ছেলেদেরও অনেকে স্কুল ছেড়েছে। সংসারের প্রয়োজনে অর্থ উপার্জনে বাড়ি ছেড়েছে।

বাড়ি ফিরে বিষয়টি নিয়ে ভাবছিলাম। করোনা আমাদের শিক্ষাব্যবস্থাকে লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছে। প্রায় এক বছর হতে চলল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কবে নাগাদ স্কুলগুলো খুলবে, কেউ বলতে পারে না। পালা করে ‘স্কুলবন্ধ ঘোষণা’র খবরটি ছাড়া কেউ কিছুই জানে না।

অথচ রাষ্ট্রের আর সব প্রতিষ্ঠান কবেই খুলে দেওয়া হয়েছে। করোনার মধ্যেও সবকিছু সচল এবং স্বাভাবিক চলছে। কোন কিছুতেই কারো সমস্যা হচ্ছে না। সম্ভাব্য সব সমস্যা কেবল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে!

চলতি শিক্ষাবর্ষে কোন পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি পাবলিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। ‘অটোপাস’ নামীয় অক্টোপাসের কবলে এখন আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা। এর পরিণতি কী হতে পারে, সেদিকে কারো নজর আছে বলে মনে হয় না।

অথচ, ছাত্র-শিক্ষক অভিভাবকসহ সবাই এই অচলাবস্থার অবসান চায়। আবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে আসুক এটা এখন অনেকের দাবি।

‘স্বাস্থ্যবিধি’ মেনে নতুন কোন পদ্ধতি অনুসরণ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া যায়। ইতিমধ্যে আমাদের শিক্ষার অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। অভাবনীয় এই ক্ষতি রাষ্ট্র কত দিনে পুষিয়ে নিতে পারবে, সেটা এক বিরাট প্রশ্ন। সন্দেহও।

মানুষের মৌলিক মানবিক চাহিদা পুরণের অন্য সব প্রতিষ্ঠান সচল থাকলে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও সচল হোক……

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। চ্যানেল আই অনলাইন এবং চ্যানেল আই-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)