চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটন কেন্দ্রগুলো দ্রুত খুলতে ট্যুর অপারেটরদের দাবি

করোনায় পর্যটন উদ্যোক্তাদের ক্ষতি ২০ হাজার কোটি টাকা

সরকার স্বাস্থবিধি মেনে চলার শর্তে পরিবহন, দোকানপাট ও অন্যান্য সবকিছু খুলে দিয়েছে। এই যুক্তিতে স্বাস্থবিধি ও এসওপি মেনে চলার শর্তে বাংলাদেশের পর্যটন কেন্দ্রগুলো খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের সংগঠন ‘ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব)’।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এ দাবি জানায় সংগঠনটি।

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে ভয়াবহ ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে পর্যটন শিল্প। গত বছরের করোনার কারণে পর্যটনের সঙ্গে সম্পৃক্তদের ক্ষতির পরিমাণ ২০ হাজার কোটি টাকার বেশি। শুধু টোয়াব সদস্যদের ক্ষতি হয়েছে পাঁচ হাজার সাতশ’ কোটি টাকা। আর চলতি বছরের মার্চ থেকে সবকিছু স্থবির হওয়ায় পর্যটন খাতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়ছে। জুন পর্যন্ত করোনার এই পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে ট্যুর অপারেটরদের ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে প্রায় ছয় হাজার আটশ’ কোটি টাকা। চলমান পরিস্থিতি আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত হলে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা হতে পারে।

টোয়াব বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকে ধ্বংসের হাত রক্ষার জন্য ৫টি দাবি জানিয়েছে। তাদের দাবিগুলো হচ্ছে— ১. পর্যটন শিল্পকে ধ্বংসের হাত রক্ষার জন্য পর্যটন কেন্দ্রগুলো স্বাস্থবিধি ও এসওপি মেনে ধারন ক্ষমতার ৫০ ভাগ পর্যটক সেবা দেওয়ার শর্তে দ্রুত খুলে দেওয়া। ২. ট্যুর অপারেটরদের জন্য প্রণোদনার ব্যবস্থা করা। ৩. ট্যুর অপারেটরদের ব্যবসা পরিচালনার জন্য ট্রেড লাইসেন্স রিনিউয়াল ফি মওকুফ করা। ৪. টোয়াব সদস্যদের ও টোয়াবের সচিবালয়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকাদানের ব্যবস্থা করা। ৫. বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের যথাযথ উন্নয়ন ও বিকাশে পর্যটনের জন্য একটি স্বতন্ত্র মন্ত্রণালয় করা।

বিজ্ঞাপন