চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা এক অবিচ্ছেদ্য সত্ত্বা: স্পিকার

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের অবদান অনস্বীকার্য। বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা এক অবিচ্ছেদ্য সত্ত্বা। এ সত্ত্বাকে কখনই পৃথক করা যাবে না।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৮৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে “বাঙ্গালির মুক্তিসংগ্রামে ফজিলাতুন নেছা মুজিব” শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে উইমেন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্ক, বাংলাদেশ এ সভার আয়োজন করে।

বিজ্ঞাপন

স্পিকার বলেন, মুজিব ছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামে নিত্যদিনের সাথী। তার রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, দৃঢ় মনোবল ও অসীম সাহস প্রতিনিয়তই বঙ্গবন্ধুকে অনুপ্রেরণা ও উৎসাহ যুগিয়েছে বাংলার মানুষের মুক্তিসংগ্রামে।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব মনে প্রাণে একজন আদর্শ বাঙালি নারী ছিলেন। স্বামীর রাজনৈতিক জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সর্বান্তকরণে সহযোগিতা করেছেন তিনি।  আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের রোগে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, কারাগারে আটক নেতাকর্মীদের খোঁজ-খবর নেওয়া ও পরবিার-পরজিনদের যেকোন সংকটে পাশে দাঁড়াতেন তিনি। ইতিহাসে তাই শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব কেবল একজন সাবেক রাষ্ট্রনায়কের সহর্ধমিনীই নন, বাঙালির মুক্তি সংগ্রামে অন্যতম এক স্মরণীয় অনুপ্ররেণাদাত্রী। 

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ফজিলাতুন নেসা বাপ্পী এমপি, সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার অধ্যাপক গোলাম রহমান, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশের খবরের সম্পাদক আজিজুল ইসলাম ভূইয়া।

উইমেন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক আঙ্গুর নাহার মন্টির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ সভাপতি শাহনাজ মুন্নী।