চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্টোকস-রুটদের নিজস্ব বল, পানির বোতল ব্যবহার করতে হবে

আগামী সপ্তাহ থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তান সিরিজকে সামনে রেখে অনুশীলন শুরু করতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। অনুশীলন সামনে রেখে একবক্স করে বল দেয়া হবে স্টোকস-ব্রডদের। কঠোরভাবে নিষেধ করা হয়েছে যেন কিছুতেই বলে লালা না লাগান ক্রিকেটাররা।

করোনাভাইরাসের কারণে জুলাই পর্যন্ত সমস্ত ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ রেখেছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। বৃহস্পতিবার এক ঘোষণায় চুক্তিতে থাকা ৩০ ক্রিকেটারকে অনুশীলনের জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। যাতে গ্রীষ্মে পরিস্থিতি ভালো হওয়া মাত্রই মাঠে নেমে পড়া যায়।

বিজ্ঞাপন

ঘোষণায় বলা হয়েছে সরকারী নীতিমালা মেনেই অনুশীলন করতে হবে ক্রিকেটারদের, ‘আমরা পরিস্থিতি মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছি। তাই সুপারমার্কেটে যাওয়ার চেয়ে অনুশীলনে ফেরাই ভালো। আমি বিষয়টা হাল্কাভাবে নিচ্ছি না, প্রতিবার বাইরে যাওয়া ঝুঁকির ব্যাপার।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ইংলিশ পত্রিকা দ্য গার্ডিয়ানকে সাক্ষাৎকারে এমনই বলেছেন ইসিবির ক্রিকেট পরিচালক অ্যাশলে জাইলস। বলেছেন, ‘প্রত্যেকের নিজস্ব বল’ নীতিতে ক্রিকেটাররা দেশের ১১টি ভেন্যুতে অনুশীলন করবেন, যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা যায়।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্রিকেটাররা প্রত্যেকে একবক্স করে বল পাবেন। ব্যবহার করা না হলে বলগুলো সব কিট ব্যাগে থাকবে। আগামী বুধবার থেকে কোচদের সঙ্গে ব্যক্তিগত সেশন করতে পারবেন বোলাররা। ব্যাটসম্যানরা অনুশীলনে নামবেন দুই সপ্তাহ বাদে।

‘খেলোয়াড়দের নিজেদের গাড়িতে করে অনুশীলনে আসতে বলা হয়েছে এবং পরিষ্কার পানির বোতল চিহ্নিত করে রাখতে বলা হয়েছে। নিয়মিত হাত পরিষ্কার করতে হবে এবং বাসায় গিয়ে গোসল করতে হবে।’

কোচ ও ফিজিওর তত্ত্বাবধানে নিয়মিত ক্রিকেটারদের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হবে। একমাত্র ফিজিও মাঠে পিপিই পরে থাকতে পারবেন। ব্যাটসম্যানরা অনুশীলনের সময় বল হাতে ধরতে পারবেন না, পা অথবা ব্যাট দিয়ে কোচের দিকে বল এগিয়ে দিতে হবে।