চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্টোকস দায়িত্ব না নিলে বিপদে পড়বে ইংল্যান্ড: চ্যাপেল

টেস্ট ক্রিকেটে ইংলিশদের ভরাডুবির দায় নিয়ে এ মাসের শুরুর দিকে পদত্যাগ করেন জো রুট। শূন্যস্থান পূরণে নতুন অধিনায়কের খোঁজে ইংলিশরা। কে ধরবে টেস্ট ক্রিকেটে ইংলিশদের হাল এই নিয়ে প্রতিনিয়তই জল ঘোলা হচ্ছে। তবে অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি ক্রিকেটার ইয়ান চ্যাপেলের মতে বেন স্টোকস অধিনায়কত্বে আগ্রহ না দেখালে বড় বিপদে পড়বে ইংল্যান্ড।

‘সেরা একাদশে শুধুমাত্র একটি কার্যকরী অধিনায়কত্বের বিকল্প রয়েছে তা হল স্টোকস। যদি সে নেতৃত্বের ভার নিতে আগ্রহী না হন, তাহলে ইংল্যান্ড বড় সমস্যায় পড়বে। পূর্ববর্তী তারকা অলরাউন্ডারদের অকেজো অধিনায়কত্বের উপর ভিত্তি করে স্টোকসের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা বোকামি। স্টোকসের পেটে ক্ষুধা রয়েছে। সফল হওয়ার ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে। যদিও, এটি সাফল্যের গ্যারান্টি দেয় না। তবুও সেই হতে পারে এই মুহূর্তে সেরা পছন্দ।’

Reneta June

জুনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড। তার আগেই নেতৃত্বে যোগ্য কাউকে বসানো চাই। সে তালিকায় সবার উপরে আছে অলরাউন্ডার স্টোকস। তালিকায় নাম ছিল ইংলিশদের ২০১৯ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ইয়ন মরগানেরও। তবে মরগান দায়িত্ব না নিয়ে বল ঠেলে দিয়েছেন স্টোকসের দিকে।

বিজ্ঞাপন

‘অবশ্যই স্টোকস দুর্দান্ত এক খেলোয়াড়, একজন বুদ্ধিদীপ্ত নেতা। যদিও তার নেতৃত্ব দেয়ার জন্য অধিনায়কের আর্মব্যান্ড থাকার দরকার নেই। লর্ডসে বিশ্বকাপ ফাইনালের অভিজ্ঞতার কথা এলেই তার নেতৃত্ব গুণ সামনে আসে। টুর্নামেন্টজুড়ে যেভাবে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, সে অবশ্যই টেস্ট অধিনায়ক প্রার্থী হবেন।’

অধিনায়কত্বে জস বাটলার ও স্টুয়ার্ড ব্রডের প্রসঙ্গ আসলে তাদের রুটের বিকল্প ভাবতে নারাজ সাবেক অজি অধিনায়ক।

‘ব্রড একজন বুদ্ধিমান, ভাল ক্রিকেটার, তবে তাকে অধিনায়কত্বে বিবেচনা করা উচিত নয়। সে অনেক বয়স্ক। বাটলার টেস্টে উইকেটরক্ষক নন। একাদশেও নিয়মিত নয়। সাইড-বেঞ্চ থেকে টেস্ট ক্রিকেটে এসে জেতা কঠিন।’