চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সৌদি যুবরাজের ‘পাপাচারী কর্মকাণ্ডে’ আল কায়েদার হুঁশিয়ারি

সিনেমা হল খুলে দেয়া ও নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতিসহ সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নতুন নতুন সংস্কারমূলক প্রকল্পগুলোকে ‘পাপাচারী কর্মকাণ্ড’ বলে আখ্যা দিয়েছে জঙ্গি সংগঠন আল কায়েদা। এ বিষয়ে যুবরাজকে হুঁশিয়ারও করেছে দলটি।

এসব কাজ করে মোহাম্মদ চরম পাপ করছেন উল্লেখ করে শুক্রবার আল কায়েদা এক বিবৃতি প্রকাশ করে।

বিজ্ঞাপন

গত বছরের জুনে বাদশাহ সালমানের ক্ষমতার উত্তরাধিকারী হিসেবে ঘোষণার পর থেকে সৌদি আরবের প্রচলিত অতি রক্ষণশীল সমাজ ও রাজনৈতিক ব্যবস্থার বাইরে গিয়ে একের পর এক নীতিমালার পরিবর্তন এনেছেন মোহাম্মদ। তিনি একদিকে যেমন অনেকের প্রশংসা কুড়িয়েছেন, তেমনি রক্ষণশীলদের মাঝে তার সমালোচনাও হয়েছে ব্যাপক।

যুবরাজ মোহাম্মদের সংস্কারবাদী প্রকল্পগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য দু’টি ছিল নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি এবং স্টেডিয়ামে গিয়ে খেলা দেখার সুযোগ করে দেয়া। এছাড়া দীর্ঘ ৩৫ বছর পর সম্প্রতি সৌদি সরকার আবারও চালু করেছে সিনেমা হল

বিজ্ঞাপন

এসবের প্রতিবাদ করে আল কায়েদা নিজস্ব সংবাদ বুলেটিন মাদাদ-এ বলেছে, ‘বিন সালমানের নতুন শাসনে মসজিদগুলোকে মুভি থিয়েটারে পাল্টে দেয়া হয়েছে। তিনি ইমামদের লেখা বই সরিয়ে জায়গা দিয়েছেন পূর্ব আর পশ্চিমের নাস্তিক-ধর্মনিরপেক্ষদের রচিত অর্থহীনতাকে। দুর্নীতি ও নৈতিক অবক্ষয়ের দরজাও খুলে দিয়েছেন।’

ওই বিবৃতিতে আল কায়েদা গত এপ্রিলে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের জন্য পবিত্রতম স্থান মক্কার কাছে অবস্থিত সৌদির উপকূলবর্তী শহর জেদ্দায় ‘রয়্যাল রাম্বল’ রেসলিং প্রোগ্রাম আয়োজনের তীব্র প্রতিবাদ করেছে।

‘(বিদেশি) অবিশ্বাসী রেসলাররা সেখানে মুসলিম তরুণ-তরুণীদের সামনে তাদের শরীরের গোপন অংশগুলো প্রকাশ করেছে এবং তাদের বেশিরভাগের গায়েই ক্রুশ চিহ্ন আঁকা ছিল।’

‘সেখানেই থামেনি নীতিভ্রষ্টরা। প্রত্যেক রাতে এখানে আয়োজন হচ্ছে সঙ্গীত কনসার্ট। এর সাথে চলছে চলচ্চিত্র আর সার্কাস শো।’

মাদাদ ছাড়াও আল কায়েদার এই বিবৃতি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক উগ্রপন্থি বার্তা-প্রচারণা পর্যবেক্ষক প্রতিষ্ঠান সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপের ওয়েবসাইটে এসেছে।

Bellow Post-Green View