চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সৌদি আরবে সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন তেল উত্তোলন ও পরিশোধন কোম্পানি সৌদি আরামকোর দুটি প্রধান স্থাপনায় ড্রোন হামলার ঘটনায় দেশটিতে সেনা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সৌদিতে সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনাটি ‘আত্মরক্ষামূলক’, আক্রমণের উদ্দেশ্যে নয়।

অবশ্য কতজন সেনা সদস্য পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানাননি তিনি।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সময় ভোর ৪টার দিকে সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশে অবস্থিত সৌদি আরামকো’র আবক্বাইক্ব এবং খুরাইসে অবস্থিত দু’টি স্থাপনায় ড্রোন হামলার ঘটনায় আগুন লেগে যায়।

আরামকোর শিল্পাঞ্চল নিরাপত্তা বাহিনী কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সফল হয়।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা হামলার দায় স্বীকার করলেও যুক্তরাষ্ট্র এবং সৌদি সরকার এই দাবি মানতে নারাজ। হামলার জন্য দেশ দু’টির সরকার ইরানকে দায়ী করছে।

অবশ্য ইরান হামলায় যে কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা অস্বীকার করেছে।

শুক্রবার সকালে ওভাল অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, ইরানের বিরুদ্ধে ‘সর্বোচ্চ মাত্রা’র অবরোধ আরোপ করার পরিকল্পনা রয়েছে। নতুন অবরোধগুলো ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক এবং এর সার্বভৌম তহবিলকে লক্ষ্য করে আরোপ করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্র এক্ষেত্রে কোনো সামরিক সংঘর্ষে জড়াতে চায় না বলেও জানিয়েছিলেন তিনি।

অথচ শুক্রবারই দিন শেষে এসপার সৌদিতে সেনা পাঠানোর ঘোষণা দিলেন।

শেয়ার করুন: